শিক্ষকদের নিজের জেলায় নিয়োগ করা হবে, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

সরস্বতী পুজোর প্রাক্কালে শিক্ষকদের বদলি সংক্রান্ত বড়সড় খবর দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ নিজের টুইটারে স্কুল শিক্ষকদের জন্য সুখবর দিয়ে সরস্বতী পুজোর ছুটির ঘোষণা কথা জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ একই সঙ্গে স্কুল শিক্ষকদের জেলার মধ্যেই নিয়োগ ও বদলির সুবিধা দেওয়ার জন্য বড়সড় সুখবর দিয়েছেন তিনি৷

টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘‘আমরা আমাদের শিক্ষক ও আমাদের ছাত্রদের জন্য গর্বিত৷ শিক্ষকরা হলেন প্রধান অভিভাবক৷ আমাদের আগামীকালকে সত্যিকারের নেতা হওয়ার জন্য আমাদের ছাত্রদের লালন-পালনের মাধ্যমে সমাজ এবং জাতি গঠনে তাঁদের বিশাল অবদান রয়েছে৷’’

দ্বিতীয় টুইটে শিক্ষক বদলির প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘‘সরস্বতী পুজার প্রাক্কালে, আমাদের সকল শিক্ষদের প্রতি কৃতজ্ঞতা৷ আমরা শিক্ষকদের নিজের জেলায় পোস্ট করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছি৷’’

মুখ্যমন্ত্রী তাঁর তৃতীয় টুইটে লেখেন, ‘‘এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তটি তাঁদের নিজের পরিবারের প্রতি যত্নবান হতে পারবেন৷ সমাজ গঠনের কাজে অবদান রাখার জন্য বেশি সময় দিতে পারবেন৷ শান্ত ও মনোযোগ নিয়ে কাজ করতে সহায়তা করবে এই সিদ্ধান্ত৷ সকলকে আমার শুভেচ্ছা!’’ মুখ্যমন্ত্রী এই সিদ্ধান্তকে ঐতিহাসিক আখ্যা দিয়ে জানিয়েছেন, এতে শিক্ষকরা নিজেদের পরিবারের দেখভাল করতে পারবেন, মন দিয়ে পড়়াতে পারবেন, তাঁদের পুরো নজর থাকবে দেশগঠনের মহান কাজ ব্রতী হওয়ার দিকে। প্রত্য়েককে আমার শুভেচ্ছা জানাই।মমতার এই ঘোষণার পরে পর্যবেক্ষকদের একাংশের মতে, ক্ষমতায় থাকাকালীন এই শিক্ষক নিয়োগের ক্ষেত্রেই সবথেকে বেশি সমালোচনা শুনতে হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। তিনি বারবার এই বিক্ষোভ থামানোর চেষ্টা করেছেন। কখনও নিজে হাজির হয়েছেন ধর্নামঞ্চে। বেতন বাড়ানোর আশ্বাস দিয়েছেন। কখনও বা শিক্ষমন্ত্রীকে বৈঠকে বসে সমাধানসূত্র বের করার নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু তারপরেও এই বিক্ষোভ সম্পূর্ণভাবে কমেনি। আর তাই শিক্ষকদের নিজের জেলায় নিয়োগের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করলেন তিনি।