সল্টলেকে বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার ছেলের কঙ্কাল, গ্রেফতার মা ও ভাই

সল্টলেকের একটি বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার করা হল নরকঙ্কাল। উদ্ধার হওয়া কঙ্কালটি ওই বাড়িরই মৃত বড় ছেলে অর্জুন মহেন্সারিয়ার বলেই অনুমান করা হচ্ছে। পরিবার সূত্রে খবর, অনিল মহেন্সারিয়া রাজারহাটে থাকতেন। সল্টলেকের এ জে ব্লকের ২২৬ নম্বর বাড়িটি তালা বন্ধই থাকতো। খুব স্বাভাবিক ভাবে কঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় আতঙ্কিত এলাকাবাসী। পুলিশ কঙ্কালটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে।

আরও পড়ুন : রাজনৈতিক অপসংস্কৃতি: পরিকল্পিত হামলা, অভিষেকের বাসভবনে কালি

এদিকে, বড় ছেলেকে খুন করে লাশ লোপাট করে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তাঁরই মা ও ছোট ভাই-এর বিরুদ্ধে। মৃতের বাবা অনিল মহেন্সারিয়া বিধাননগর পূর্ব থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেন। তাঁর অভিযোগ, গন্ডগোলের জেরে দুই ছেলেকে নিয়ে বাপের বাড়ি চলে যান তাঁর স্ত্রী। কিন্তু কিছুতেই তিনি বড় ছেলের খোঁজ পাচ্ছেন না। বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিশ। খুনের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে মা গীতা ও ছোট ছেলে বিদুরকে।

ঠিক কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা এখনও স্পষ্ট নয়। কঙ্কালটি কার, তা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে। গোটা বিষয় খতিয়ে দেখছে বিধাননগর পূর্ব থানার পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছে ফরেনসিক দল। কঙ্কাল উদ্ধারের ঘটনায় রীতিমত আতঙ্কিত এলাকাবাসীরা জানান, এই বাড়ির লোকজন কারও সঙ্গেই মেলামেশা করতেন না। বাইরেও খুব একটা দেখা যেত না তাঁদের।