‘ওরা আগে জাতীয় শিক্ষানীতি ঠিক করুক’ বিজেপিকে তোপ শিক্ষামন্ত্রীর

শুক্রবার কলেজ স্কোয়ার থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত ‘‌শিক্ষা বাঁচাও’‌ কর্মসূচিতে পদযাত্রা করল বিজেপি। মিছিলের নেতৃত্বে ছিলেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়, সৌমিত্র খাঁ, অনুপম হাজরা। সম্প্রতি বিকাশ ভবনে গিয়ে পার্শ্ব শিক্ষকদের পাশে দাঁড়িয়ে তৃণমূল সরকারের উপর তীব্র আক্রমণ শানান বিজেপি নেতা মুকুল রায়। রাজ্যের পার্শ্ব শিক্ষকদের স্বার্থরক্ষায় কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ চেয়ে অমিত শাহকে চিঠিও দেন তিনি। এ প্রসঙ্গে বিজেপিকে পাল্টা কটাক্ষ করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘ওদের মিছিল করতে দিন। ওরা আগে জাতীয় শিক্ষানীতি ঠিক করুক।’

রাজ্যের শিক্ষা ব্যবস্থার মানোন্নয়নে তৃণমূল সরকার ব্যর্থ বলে বারংবার দাবি করছে গেরুয়া শিবির। আজ মিছিল থেকে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের শাসকদলকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘খালি কেন্দ্রকে দোষ দেন, কেন্দ্রের সঙ্গে কোনও সমঝোতা করেন না, আগে নিজের রাজ্য দেখুন’‌। এর আগে তৃণমূল নেতা ব্রাত্য বসু বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়ে বলেন, “ গুজরাতের শিক্ষকদের পেনশন দেওয়া হয় না। ”

সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া নেতা রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘শিক্ষা বাঁচাতে হবে। শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী সহ সবাই আজ রাস্তায় নেমেছেন। শুধু শিক্ষা নয়, এই রাজ্য সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ। এই রাজ্য সরকারের আমলে শিক্ষক, পার্শ্বশিক্ষকদের কী অবস্থা আমরা দেখেছি। শিক্ষার সঙ্গে যুক্ত প্রত্যেকের দৈন্য দশা। কেউ ঠিকমতো বেতন পান না।’‌ তিনি আরও বলেন, পার্শ্বশিক্ষকদের ধাপে ধাপে স্থায়ীকরণ করা হবে বলে জানিয়েছিল রাজ্য সরকার। কিন্তু তা হয়নি। আন্দোলন করলে তাঁদেরও জেলে যেতে হচ্ছে।

আরও পড়ুন- ট্রাফিক পুলিশের তৎপরতা, ১৫ মিনিটে মিলল ‘হারানিধি’

Advt