কুটিল চিত্রনাট্য ছিল, নন্দীগ্রাম নিয়ে এবার মুখ খুললেন বুদ্ধদেব

একুশে বিধানসভা ভোটের সর্বোচ্চ উত্তাপ এবার কেন্দ্রীভূত হয়েছে নন্দীগ্রামকে (nandigram) ঘিরে। একদা দুই সতীর্থ আজ পরস্পরের প্রতিপক্ষ। দ্বিতীয় দফা ভোটের আগে নন্দীগ্রাম নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্তব্যে ফের রাজনৈতিক আলোচনায় প্রাসঙ্গিক হয়ে উঠেছে ২০০৭ সালের অগ্নিগর্ভ সময়। এবং তা এতটাই যে ভোট ময়দানে সম্পূর্ণ অনুপস্থিত থেকেও এই ইস্যুতে মুখ খুলতে বাধ্য হলেন মমতার পূর্বসূরি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য (buddhadev bhattacharya)। নন্দীগ্রাম অধ্যায়কে ‘কুটিল চিত্রনাট্য’ আখ্যা দিয়ে সোমবার লিখিত বিবৃতি দিলেন বাংলার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

বিজেপি-তূণমূল দুই দলকেই নিশানা করেছেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, ‘নন্দীগ্রাম, সিঙ্গুরে এখন শশ্মানের নীরবতা। সে সময়ের কুটিল চিত্রনাট্যের চক্রান্তকারীরা আজ দু’ভাগে বিভক্ত হয়ে পরস্পরের বিরুদ্ধে কাদা ছোড়াছুড়ি করছে। কর্মসংস্থানের সুযোগ হারিয়েছে বাংলার যুব সমাজ।’
এর পাশাপাশি তাঁর সরকারের লক্ষ্যের কথা মনে করিয়ে দিয়ে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বামফ্রন্ট সরকারের সময় থেকেই যে অর্থনৈতিক-রাজনৈতিক ভাবনা আমরা রাজ্যের মানুষকে বলার চেষ্টা করেছি, তা হল কৃষি আমাদের ভিত্তি-শিল্প আমাদের ভবিষ্যৎ। আমরা সেই পথ ধরেই এগিয়েছি’।