বাবুলের শপথগ্রহণে ধনকড়ের নতুন শর্ত, রাজ্যপালের নিন্দায় সরব স্পিকার

রাজ্য-রাজ্যপাল সংঘাতের জেরে বালিগঞ্জের নবনির্বাচিত।বিধায়ক বাবুল সুপ্রিয়র শপথ গ্রহণ ঘিরে তৈরি হয়েছে নতুন জটিলতা। সাংবিধানিক নিয়মানুসারে, শপথপাঠ সংক্রান্ত ফাইলে রাজ্যপালের স্বাক্ষরের প্রয়োজন হয়। কিন্তু জগদীপ ধনকড় বিধানসভার পাঠানো সেই ফাইলে সই করতে অস্বীকার করেন। এবং ফেরৎ পাঠিয়ে দেন ফাইল।

রাজ্যপালের এমন “অসংবিধানিক” আচরণের জন্য ফের ধনকড়ের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন বিধানসভার স্পিকার বিমাম বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন রাজ্যপালের এমন ভূমিকার কড়া সমালোচনা করে স্পিকার বলেন, “বিধায়ককে শপথবাক্য পাঠ করানো রাজ্যপালের সাংবিধানিক দায়বদ্ধতা। তিনি নিজে করবেন, নয়ত কাউকে দায়িত্ব দেবেন। মানুষের ভোটে নির্বাচনে জিতে আসার পর দ্রুত শপথ পাঠ করানো উচিত নতুন বিধায়ককে। তা করা না গেলে বিধায়ক অনেক অধিকার থেকে সুযোগ হারাবেন এবং মানুষ এলাকার উন্নয়ত থেকে বঞ্চিত হবেন। এই শপথগ্রহণ কোনও শর্তাধীন হতে পারে না।”

বিধানসভা সূত্রে খবর, রাজ্যপাল বাবুল সুপ্রিয়র শপথগ্রহণ সংক্রান্ত ফাইলে সই তো করেননি, বরং বিধানসভার সচিবকে রাজভবনে ডেকে পাঠিয়েছেন তিনি। এতদিন বিধানসভা সংক্রান্ত যা যা প্রশ্ন তিনি করেছেন, সেই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর দিলে, তবেই ফাইলে সই করবেন বলে শর্ত দিয়েছেন ধনকড়। ফলে বাবুলের শপথগ্রহণে বিলম্ব হচ্ছে।

 

Previous article২১ মে থেকে দুয়ারে সরকার, ৫ মে থেকে পাড়ায় সমাধান: ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী