অনলাইন জুয়া, নেশা, রূপচর্চা, বিদেশ ভ্রমণ: ফূর্তিতে দেদার টাকা ওড়াতেন অর্পিতা !

অত্যন্ত বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত ছিলেন অর্পিতা। দিনভর মজে থাকতেন অনলাইন জুয়ায়। সেখানেই উড়িয়ে দিতেন প্রচুর টাকা

বেলঘরিয়া অথবা টালিগঞ্জের ফ্ল্যাট। পার্থ ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ফ্ল্যাট থেকে উদ্ধার হয়েছে কোটি কোটি টাকা। কিন্তু যাঁর ফ্ল্যাট থেকে এত কাঁড়ি কাঁড়ি টাকা তিনি ঠিক কীভাবে টাকা খরচ করতেন? মোটের উপর কীভাবে তিনি টাকা ওড়াতেন? এনিয়েও এবার চাঞ্চল্যকর তথ্য সামনে আসছে ক্রমশ।

অত্যন্ত বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত ছিলেন অর্পিতা। দিনভর মজে থাকতেন অনলাইন জুয়ায়। সেখানেই উড়িয়ে দিতেন প্রচুর টাকা। এরপর রূপচর্চার প্রতি টানও ছিল অদম্য। বিদেশ থেকে আসত তাঁর মেকআপ কিট। সেসবেই তিনি খরচ করতেন লক্ষ লক্ষ টাকা। তিনটি পার্লারও খুলে ফেলেছিলেন তিনি। সেখানে অবশ্য পুঁজির কোনও অভাব ছিল না। সেখানে যে বিদেশি মেক আপ কিট ব্যবহার করা হত সেগুলির দামও লক্ষ লক্ষ টাকা।

এখানেই শেষ নয় একাধিক ক্লাবে গিয়ে টাকা ওড়ানোতে অভ্যস্ত ছিলেন অর্পিতা। এতে জলের মতো খরচ হত টাকা। এর উপর ছিল বিদেশ ভ্রমণের শখ। দুবাইতে গিয়ে আইপিএলও দেখে এসেছেন। ওড়িয়া ও তামিল ছবির একাধিক অভিনেত্রীর সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা ছিল। তাঁদের সঙ্গে নিয়ে মাঝেমধ্যে একটু বিদেশে ঘুরতে বেরোতেন।বিদেশযাত্রা বলতে সে এক এলাহি আয়োজন! ফ্লাইটে বিজনেস ক্লাসে যাতায়াত। পাঁচতারা হোটেল, গাড়িতে ঘুরে বেড়ানো—এরকম যাপনেই অভ্যস্ত ছিলেন তিনি।আসলে চাকরিপ্রার্থীদের টাকায় ফূর্তি করেছেন অর্পিতা।

 

 

Previous articleকমনওয়েলথ গেমসে সোনার পদক জয়ী জেরেমিকে অভিনন্দন প্রধানমন্ত্রী- মুখ্যমন্ত্রীর