মদ নিষিদ্ধ! নীতীশের বিহারে বিষমদে মৃত ১১, কাঠগড়ায় প্রশাসনিক নজরদারি

মদ নাকি নিষিদ্ধ বিহারে (Bihar)! কিন্তু সেখানেই একের পর এক বিষমদে মৃত্যুর ঘটনায় কাঠগড়ায় প্রশাসনিক নজরদারি। বিষমদ খেয়ে এখনও

মদ নাকি নিষিদ্ধ বিহারে (Bihar)! কিন্তু সেখানেই একের পর এক বিষমদে মৃত্যুর ঘটনায় কাঠগড়ায় প্রশাসনিক নজরদারি। বিষমদ খেয়ে এখনও পর্যন্ত ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। আশঙ্কাজনক ১২ জন। অনেকেই দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন। বিষমদ-কাণ্ডে এখনও পর্যন্ত ৫ জন ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্থানীয় থানার পুলিশ আধিকারিককে সাসপেন্ড করে মুখ রক্ষার চেষ্টা করছে নীতীশ কুমারের প্রশাসন।

গত বৃহস্পতিবার থেকে বিহারের সারন (Saran) জেলার ফুলওয়ারিয়ায় বিষমদে মৃত্যু মিছিল চলছে। স্থানীয় পুলিশ সূত্রে খবর, প্রথমে একটি মেডিক্যাল টিম (Medical Team) ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়। অসুস্থদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়া পাটনার (Patna) পিএমসিএইচ (PMCH) হাসপাতাল স্থানান্তরিত করা হয়।

স্থানীয় রীতি মেনে, শ্রাবণ মাসে নির্দিষ্ট তিথিতে বিহারে অনেকে মদ্যপান করেন। ৩ অগাস্ট ছিল সেই দিন। ওইদিনই ফুলওয়ারিয়ায় বেশ কয়েকজন মানুষ বিষমদ পান করেন বলে অভিযোগ। তার জেরেই মৃত্যুমিছিল।

২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে বিহারে মদ নিষিদ্ধ করে নীতীশ কুমার সরকার। প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কীভাবে প্রশাসনের নজর এড়িয়ে মদের কারবার চলত! এর আগেও সেখানে বিষমদে মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। একের পর এক এই ধরনের ঘটনায় বিজেপি-জেডিইউ জোট সরকারের বিরুদ্ধে সরব বিরোধীরা।

আরও পড়ুন:বিজেপিকে মেরুদণ্ড বন্ধক, দলীয় নির্দেশ অমান্য করে উপ-রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটদান শিশির-দিব্যেন্দুর

 

Previous articleবিজেপিকে মেরুদণ্ড বন্ধক, দলীয় নির্দেশ অমান্য করে উপ-রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটদান শিশির-দিব্যেন্দুর