হাজরার কথা মনে নেই? কম অত্যাচার করেছেন, ঐশী প্রসঙ্গে বামেদের কটাক্ষ মুখ্যমন্ত্রীর

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে তিনি সভা করতে চেয়েছিলেন। অথচ তাঁকে সভা করার অনুমতি দেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। অনুমতি পাননি নিজের বাড়ি দুর্গাপুরেও সভা করার। ফলে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন জেএনইউ ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষ। বিষয়টি নিয়ে শুক্রবার বিধানসভাতেও সরব হয়েছিলেন বাম বিধায়করা। কিন্তু তারপরই জবাবে বিধানসভাতেই বামেদের ৩৪ বছর সময়কাল মনে করার পরামর্শ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তীর আক্রমণের জবাবে মমতা বলেন, ‘৩৪ বছর কী করেছেন, সব ভুলে গিয়েছেন। হাজরার কথা মনে নেই? কম অত্যাচার করেছেন, আমরা তো সেখানে কিছুই করিনি।’
উল্লেখ্য, হাজরায় তৎকালীন কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাথায় আঘাত করেছিলেন লালু আলম। যা নিয়ে দীর্ঘদিন বামেদেরই আক্রমণ শানিয়ে গিয়েছেন। এদিন ফের হাজরায় সেই গণ্ডগোলের প্রসঙ্গ উঠে এল ।এদিন সারদাকাণ্ড নিয়েও সিপিএমকে আক্রমণ শানান তৃণমূলনেত্রী। বলেন, ‘সারদাকাণ্ডে সিবিআই সবাইকে গ্রেফতার করছে। কিন্তু সিপিএমের কোনও নেতাকে তো গ্রেফতার করছে না। কেন? সবাই জানে, বিজেপি সিপিএম একযোগে কাজ করে চলেছে।’ বিজেপি পরিষদীয় দলনেতা মনোজ টিগ্গাকেও এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাকে বিহার বা উত্তরপ্রদেশ ভাববেন না। এখানে রক্ত ছড়াতে দেব না। সবাই মিলেমিশে বাংলায় থাকে। সেখানে কেন গণ্ডগোল পাকানোর চেষ্টা করছেন?’