স্বামী শহিদ হওয়ার পর আর ফোন কাছে রাখেন না রীতা

চারদিকে যখন লাল বেলুন আর লাভ সাইন তখন তাঁর চোখে ভেসে ওঠে স্বামীর রক্তাক্ত দেহ। বেশি দিন নয়, মাত্র একবছর আগে এই দিনেই পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় মৃত্যু হয় তাঁর স্বামী বাবলু সাঁতরার। যতদিন বেঁচে ছিলেন স্বামীর জন্য বিশেষ রিং টোন সেট করে রেখেছিলেন রীতা সাঁতরা। বাবলু শহিদ হওয়ার পরে নিজের কাছে মোবাইল রাখেন না তিনি। শুক্রবার, উত্তরপাড়ায় বাপের বাড়িতে বসে একথাই বলছিলেন বাবলু সাঁতরার স্ত্রী।
একটা হামলা তছনছ করে দিয়েছে তাঁর জীবন, সংসার। তাই যুদ্ধ নয়, শান্তি চান রীতা। তবে, দেশের উপর যদি আঘাত আসে, তাহলে বুক চিতিয়ে শত্রুর মোকাবিলা করবে জাওয়ানেরা। যেটা তাঁর স্বামী করেছেন। প্রিয়জন হারানোর বেদনা থাকলেও স্বামীর মৃত্যুর পরে কেন্দ্র ও রাজ্য প্রতিশ্রুতি পালন করায় কৃতজ্ঞ তিনি। এখন ছোট্ট মেয়েকে বড় করে তোলাই লক্ষ্য রীতা সাঁতরার।