যোগীর উত্তরপ্রদেশে ফের এক বিজেপি- বিধায়ক ধর্ষণে অভিযুক্ত

যোগীর রাজ্যে ফের এক “ধর্ষক” বিজেপি বিধায়কের খোঁজ মিলেছে৷

উত্তরপ্রদেশের ভাদোহির বিজেপি বিধায়ক রবীন্দ্রনাথ ত্রিপাঠি
এবং তাঁর পরিবারের ৬ জন সদস্যের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠল। বিয়ের প্রতিশ্রতি দিয়ে সহবাসের অভিযোগ এনেছেন বছর চল্লিশের এক মহিলা। জেলা পুলিশ সুপার রাম বদন সিং বলেন, “অভিযোগে জানানো হয়েছে, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রথমে তাঁর সঙ্গে দৈহিক সম্পর্ক তৈরি করেন বিধায়কের ভাইপো সন্দীপ তিওয়ারি। পরে, বিধায়ক এবং তাঁর পরিবারের আরও সদস্যদের বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ এনেছেন ওই মহিলা। অভিযোগ পেয়েছি, যাঁদের নাম রয়েছে, তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছি। তদন্তের জন্য দল তৈরি করা হয়েছে”

ওই মহিলার অভিযোগ, ট্রেনে পরিচয় হয় বিধায়কের ভাইপোর সঙ্গে৷ বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তিনি ৬ বছর ধরে শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করেছেন। বিয়ের কথা জিজ্ঞেস করায় তাঁকে হেনস্থাও করা হয় বলেও অভিযোগ। মহিলা অভিযোগ করেছেন, ২০১৭ সালের বিধানসভা নির্বাচনের সময়, তাঁকে একটি হোটেলে আটকে রাখা হয়, এবং তাঁকে ধর্ষণ করেন বিধায়ক এবং চন্দ্রভূষণ ত্রিপাঠি, দীপক তিওয়ারি, নীতিশ তিওয়ারি, এবং প্রকাশ তিওয়ারি।
ওদিকে, যথারীতি বিধায়ক বলেছেন, রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র করেই তাঁর সম্মানহানি করতে এই অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি বলেন, “তদন্তে যদি কোনও অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হয়, ফাঁসিকাঠে ঝুলতে প্রস্তুত আমি এবং আমার আমার পরিবার”। পুলিশ প্রধান জানিয়েছেন, ঘটনার তদন্ত চলছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্তের ফল অনুযায়ী পুলিশ ব্যবস্থা নেবে৷”