নিজামুদ্দিন সমাবেশই করোনা বিস্তার করেছে, তবলিঘি জামাতকে নিষিদ্ধ করার দাবি তসলিমার

দিল্লির নিজামুদ্দিনে ধর্মীয় সমাবেশ থেকেই ভারতে করোনা সংক্রমণ ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েছে। এই অবিবেচকের মতো ঘটনার নিন্দা করে এবার তবলিঘি জামাতকে নিষিদ্ধ করার দাবি জানালেন বাংলাদেশের বিখ্যাত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

এক টুইট বার্তায় তসলিমার দাবি, “তবলিঘি জামাত একটি ইসলামি কট্টরপন্থীদের আন্দোলন। ১৯২৬ সালে হরিয়ানার মোয়াতে যার শুরু। উজবেকিস্তান, তাজিকিস্তান, কাজাকাস্তান তবলিঘি জামাতকে ইতিমধ্যেই নিষিদ্ধ করেছে। এই সংগঠনের সঙ্গে জঙ্গিদের সরাসরি সম্পর্ক রয়েছে। তাদের কট্টরপন্থীদের মনোভাবের জন্য আজ বহু মানুষ করোনা সংক্রমিত হয়েছেন। আগামীদিনে যা আরও বড় আকার ধারণ করবে। তাই এদের অবিলম্বে নিষিদ্ধ করা হোক।”

এখানেই শেষ নয়, তবলিঘি জামাতের বিরুদ্ধে তসলিমার আরও অভিযোগ, “মালয়েশিয়ায় কোভিড-১৯ পজিটিভি রোগীর দুই-তৃতীয়াংশের সঙ্গে তবলিঘি জামাতের সরাসরি সংযোগ ছিল। গত ২৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত সেখানে জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রায় ১৬,০০০ মানুষ অংশ নেন। এদের মধ্যে ১,৫০০ চিন ও দক্ষিণ কোরিয়ায় নাগরিক। বোধগম্য হচ্ছে না,ভারত সরকার কীভাবে এদের জামাত করার অনুমতি দিল।