শেষ ১৪দিনে লকেটের সংস্পর্শে কারা এসেছিলেন? তৈরি হলো তালিকা!

মারণ ভাইরাস কোভিড-১৯ আক্রান্ত হলেন রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক তথা হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়।

আর সংক্রমণ রুখতে বড় সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য বিজেপি। শুধু গেরুয়া শিবির নয়, তৎপর হয়েছে প্রশাসনও।

এই পরিস্থিতিতে পথে নেমে সমস্ত কর্মসূচি বাতিল করল রাজ্য বিজেপি। লকেটের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর নিজেই টুইট করে সেই তথ্য জানান বিজেপি নেত্রী। আপাতত বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি।

টুইটে লকেট জানান, বেশ কিছুদিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন তিনি। সঙ্গে সর্দি, কাশি-সহ করোনার উপসর্গ ছিল। এরপর দু’বার তাঁর নমুনা সংগ্রহ করা হয়। প্রথমবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও দ্বিতীয় টেস্টে সেই রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

ইতিমধ্যেই বিজেপি সাংসদের সংস্পর্শে শেষ প্রায় ১৪ দিনে যাঁরা এসেছিলেন, সেই তালিকা তৈরি করা হয়েছে। তাঁদের নজরদারিতে রাখা হবে প্রশাসনের তরফে। তাঁদের আপাতত হোম কোয়ারান্টিনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। শুধু দলীয় কর্মী-সমর্থক নন, লকেটের পরিবার-পরিচিতি থেকে শুরু করে সাংবাদিকদেরও এই পরামর্শ দিয়েছে প্রশাসন। রাজ্য বিজেপি নেতারাও প্রশাসনের সিদ্ধান্তে সহমত হয়েছেন।

একইসঙ্গে অনির্দিষ্টকালের জন্য সেন্ট্রাল এভিনিউয়ে রাজ্য বিজেপি সদর দফতর বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি নেতৃত্ব।