সব বিধায়ককে প্রার্থী? এটা কী নেত্রীর উৎসাহব্যঞ্জক টোটকা

দলের ভার্চুয়াল সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা, প্রত্যেক বিধায়ককে তাদের বিধানসভায় জিততে হবে। ফলে দলের মধ্যেই আলোচনা শুরু, প্রত্যেক সিটিং এমএলএ কী ২০২১-এ টিকিট পাচ্ছেন? মুখ্যমন্ত্রীর কথায় সেই জল্পনা মাথাচাড়া দিয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন হচ্ছে এটা আদৌ সম্ভব নাকি, বিধায়কদের চাঙ্গা রাখতে এবং ঘরের মধ্যে ঘরের সম্ভাবনা অর্থাৎ দলীয় কোন্দল দূর করতে মুখ্যমন্ত্রীর এই উৎসাহ বর্ধক টোটকা। ২০১৬-র ভোটে তৃণমূল এককভাবে ২১১টি আসন পায়। এরপর দল বদলে অনেকে অন্যদল থেকে আসে। ফলে সংখ্যা আরও বেশি, ২৩০ পেরবে। ফলে ৬০-৬৫টি আসনে মাত্র নতুন মুখ, এমন পরিস্থিতির কথা রাজনৈতিক মহলেরও মানতে অসুবিধা হচ্ছে। এই অবস্থায় সব বিধায়ককে ফের টিকিট দেওয়ার যুক্তি নিয়ে তাই আলোচনা সর্বত্র।