আবাস যোজনায় জিও ট্যাগিংয়ে দেশের মধ্যে এক নম্বরে পশ্চিমবঙ্গ

আবাস যোজনায় জিও ট্যাগিংয়ে এক নম্বর স্থানে জায়গা করে নিল পশ্চিমবঙ্গ। জিও ট্যাগিং এর মাধ্যমে সরকারি প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি, গতি প্রকৃতি যাচাই করা হয়। পশ্চিমবঙ্গের আবাস যোজনাতে এই ট্যাগ ব্যবহার করা হয়। আর তাতেই শীর্ষস্থানে রয়েছে বঙ্গ।

শুক্রবার ছিল কেন্দ্রীয় অনুমোদন ও নজরদারি কমিটির বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গের ভূয়সী প্রশংসা করে কেন্দ্রীয় সরকার। ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের আবাস যোজনা প্রকল্পের অধিকর্তা এবং যুগ্ম অধিকর্তা। বৈঠকে কেন্দ্রীয় আবাসন ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রকের সচিব দুর্গাশঙ্কর মিশ্র বলেন, “লাগাতার ভালো কাজ হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গে।”

ওই বৈঠকে রাজ্যের পক্ষ থেকে ৪৬টি পুরসভায় ৪৫ হাজার বাড়ি তৈরির জন্য নতুন অনুমোদন চাওয়া হয়। তাতে অনুমতি দেয় কেন্দ্র। এই প্রকল্পে জায়গা বাছাই, ভিত স্থাপন, লিনটেল, ছাদ-সহ পাঁচটি স্তরে বাড়িটি তৈরি হয়। প্রতিটি ধাপের কাজ শেষের পরে ‘জিও ট্যাগিং’ করা হয়। এরপর মেলে পরবর্তী ধাপের জন্য টাকা। ২০১৫-১৬ থেকে ২০১৯-২০ সাল পর্যন্ত আবাস যোজনা প্রকল্পে রাজ্যে ৩.৮৬ লক্ষ বাড়ি তৈরির ছাড়পত্র দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। দেখা যায়, প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ বাড়ি তৈরি করা সম্ভব। ইতিমধ্যেই ২.৩১ লক্ষ বাড়ি তৈরির কাজ শুরু হয়েছে।