শোভনের সঙ্গে ঘোরা বন্ধ, বৈশাখীর জন্য আলাদা অঙ্ক বিজেপির

শোভন চট্টোপাধ্যায়কে ভোটের মুখে সক্রিয় করতে চায় বিজেপি।

কিন্তু বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর সঙ্গে যত্রতত্র ঘুরতে পারবেন না। অন্তত দলের কর্মসূচিতে তো নয়ই।
অরবিন্দ মেনন এবং কৈলাসকে এই বার্তা দিয়েছে রাজ্য বিজেপির ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী। তাদের যুক্তি মেনেও নিয়েছেন মেননরা। খবর সেরকমই।
শোভনের জন্য পদ ভাবা হয়েছে। বৈশাখীর আলাদা পদের কথা চলছে। শিক্ষা সেলের চেয়ারপার্সন বা ওই ধরণের পদ। বৈশাখী নিজের কাজ করতে পারবেন। কিন্তু এখন যেমন শোভনের সঙ্গে সর্বত্র যান, সেটা বিজেপি হতে দেবে না। দলের এক শীর্ষনেতা বলেন,” ভোটের মুখে দলের স্বার্থে শোভনবাবুকে নামাতে হচ্ছে। কিন্তু বৈশাখীদেবীর সঙ্গে ঘোরাটা দৃষ্টিকটূ। এটা আমরা দলে হতে দেব না। এটা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এসবে নেতিবাচক বার্তা যাচ্ছে। ওঁকে আলাদা পদ দিয়ে কাজ করতে বলা হবে।”
এদিকে শোভনপর্ব আপাতত রত্নার প্রাচীরে আটকে ফের বিজেপিমুখী থাকলেও চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত ঘোষণা হয়নি। সূত্রের খবর, শোভনের জন্য দরজা খোলা রাখলেও দলের কাঁধে বন্দুক রেখে ব্যক্তিগত ঝামেলায় রত্নাকে রাজনৈতিকভাবে শেষ করার চাপ তৃণমূলের অধিকাংশই মানছেন না। তাঁরা তিতিবিরক্ত। শোভন-বৈশাখী বিজেপির হয়ে নামলেও তাঁদের কিছু এসে যায় না। মঙ্গলবার রাতে এক সামাজিক অনুষ্ঠানের আড্ডায় বিজেপির এক নেতা তৃণমূলের এক নেতাকে বলেছেন,” এখন আমাদের দরকার শোভন বা কেউ চলে যাচ্ছে না, সেটা দেখানো। তারপর দেখুন না কী দাঁড়ায়। আমরা চাই না দলকে ঘিরে কুৎসিত রঙ্গরসিকতা চলুক।”