পুজোর চূড়ান্ত রূপরেখা তৈরি করতে উদ্যোক্তাদের সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী যা বললেন

এইবার পুজো মহালয়া থেকে অনেক দেরিতে, এখনও দেবীপক্ষ শুরু হয়নি

করোনা পরিস্থিতিতে গত কয়েকমাসে কোন উৎসবই ঠিকভাবে পালন করা যায়নি

সবাই আগে সুরক্ষাকে প্রাধান্য দিয়েছেন

সব ধর্মের মানুষ সংযম দেখিয়েছেন, তাঁদের অভিনন্দন এবং কৃতজ্ঞতা

খোলামেলা মণ্ডপ করুন

গ্লোবাল অ্যাডভাইজারি বোর্ডেরও এই পরামর্শ

মণ্ডপের ওপর যদি ঢাকা থাকে, তাহলে চারিদিকটা খোলা রাখুন

চারিদিকটা ঢাকা থাকলে, ছাদটা খোলা রাখুন

রাজ্য পুলিশের এলাকায় 34 হাজার 437 টি পুজো হচ্ছে

কলকাতা পুলিশের এলাকায় 2509 কি পুজো হচ্ছে

মহিলা পরিচালিত পুজোর সংখ্যা 1706

পুজো মণ্ডপে খোলামেলা পরিবেশ রাখুন

মণ্ডপে প্রবেশ এবং প্রস্থানের জন্য আলাদা দরজা রাখুন

শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার সব সময় চেষ্টা করুন

সুরক্ষা বিধি মেনে পুজো করুন

পুজো মণ্ডপে স্যানিটাইজার রাখতেই হবে

সবাইকে মাস্ক পরেই মণ্ডপে ঢুকতে হবে

খুব দরিদ্র কেউ যদি মাস্ক পড়তে না পারেন, তাহলে পুজো উদ্যোক্তা বা পুলিশকে তাদের মাস্ক দিতে হবে

পুজোর ভলেন্টিয়ারদের মাস্কের সঙ্গে ফেস শিল্ড দিতে হবে

মণ্ডপের ঢোকার 500 মিটার আগে থেকেই স্যানিটাইজার দিতে হবে

অঞ্জলির সময় চেষ্টা করতে হবে বাড়ি থেকেই ফুল-বেলপাতা নিয়ে যেতে

প্রয়োজনে দূর থেকে মাইকে মন্ত্র শুনে পুষ্পাঞ্জলি দিন

পুজোর পরে যাতে সংক্রমণ ব্যাপক আকারে ছড়িয়ে না পড়ে সেদিকে কড়া নজর দিতে হবে

এক সময় না করে আলাদা আলাদা সময় সিঁদুর খেলা করতে হবে

এবার পুজোর সময় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করবেন না

একসঙ্গে প্রচুর গাড়ির কনভয় নিয়ে যাবেন না

বিশ্ব বাংলার তরফ থেকে ভার্চুয়ালি পুজো মণ্ডপ দেখে, পুরস্কার ঘোষণা করা হবে

যেসব সংস্থা পুজোতে পুরস্কার দেয় তারা একসঙ্গে যাবে না

একসঙ্গে দুটোর বেশি গাড়ি নিয়ে যাবেন না

পুজোকে পুরস্কৃত করার সময় সকাল 10 টা থেকে দুপুর তিনটের মধ্যে

সংক্রমণ বাড়লে অনেকে রাজনীতি করবে

আবার পুজো না হলেও তিরস্কার করবে

পুজো কমিটিগুলিকে অনুরোধ প্রত্যেককে ভালোভাবে নিয়ম বুঝিয়ে দেবেন

বিসর্জনের ক্ষেত্রে বড় মিছিল করা যাবে না

অল্প লোক নিয়ে প্রতিমা নিরঞ্জনে যেতে হবে

প্রত্যেক আইসি’কে নজর রাখতে হবে, একদিনে সব বিসর্জন যেন না হয়

ঘাটগুলিতে প্রচুর আলোর ব্যবস্থা করতে হবে

আগে থেকে ঘাট স্যানিটাইজ করতে হবে, বারবার স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে

এইবার স্পনসর্শিপ পেতে অসুবিধা হবে

এবার দমকল পুজোর জন্য কোন টাকা নেবে না

পঞ্চায়েত, পুরসভা কোন টাকা নেবে না

সিইএসসি 50% টাকা নেবে

রাজ্য বিদ্যুৎ পর্ষদ 50% টাকা নেবে

পুজোর অনুমতি অনলাইনে দিতে হবে

সব পুজো কমিটিকে 50 হাজার টাকা করে দেবে রাজ্য সরকার

আশাকর্মীদের পয়লা অক্টোবর থেকে এক হাজার টাকা করে বেতন বাড়ছে

বেতন বাড়ছে সিভিক ভলেন্টিয়ারদের

আইসিডিএস-এর কর্মীদের পেনশন দেওয়া হবে

পুজোর মাসে হকারদের 2000 টাকা করে দেওয়া হবে

এবার রেড রোডে পুজো কার্নিভাল হচ্ছে না

সংক্রমণ রুখতে এই সিদ্ধান্ত

আগামী বছরে দ্বিগুণ উৎসব করা হবে

বড় করে পুজো উদ্বোধন নয়

তৃতীয় থেকে রাতভর মণ্ডপ পরিক্রমা করা যাবে

করোনা হেরে যাক, বাংলা জিতে যাক