ভয়াবহ: মৃতদেহ রাখার বাক্সে অসুস্থ বৃদ্ধকে ঢুকিয়ে মৃত্যুর অপেক্ষা পরিজনের

ভয়াবহ বললেও এই ঘটনাকে কম বলা হয়। নৃশংসতা ও চরম অমানবিকতার নজির গড়ল তামিলনাড়ুর সালেম জেলা। ৭৪ বছর বয়সী এক অসুস্থ বৃদ্ধকে মৃতদেহ রাখার বাক্সে ঢুকিয়ে মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা করছিল তার পরিজন। সারারাত ধরে মৃতদেহ সংরক্ষণ করা ওই বাক্সের ভেতর মৃত্যুর প্রহর গুনল বৃদ্ধ। ভয়াবহ এই ঘটনায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। পরদিন সকালে ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করা হয় ফ্রিজার বক্স থেকে।

জানা গিয়েছে, গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় সম্প্রতি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল ওই বৃদ্ধকে। সোমবার অসুস্থ অবস্থাতেই তাকে ছাড়িয়ে নিয়ে আসে তার ভাই। এরপর বাড়িতে মৃতদেহ সংরক্ষণ করা ফ্রিজার বক্সে ঢুকিয়ে রাখা হয় তাকে। এই ফ্রিজার বক্সটি ভাড়া করে নিয়ে আসা হয়েছিল। সারারাত ওই ফ্রিজার বক্সে শুয়ে ছিলেন বৃদ্ধ। যাদের কাছ থেকে বাক্সটি বাড়ানো হয়েছিল পরদিন তাদের এক কর্মী বাক্সটি নিতে এসে দেখেন তার ভেতরে জীবিত মানুষকে শুইয়ে রাখা হয়েছে এক বৃদ্ধকে। চরম আতঙ্কিত অবস্থায় তড়িঘড়ি পুলিশকে ফোন করেন তিনি। এরপর ওই বৃদ্ধকে উদ্ধার করে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। পাশাপাশি বৃদ্ধার ভাইকে আটক করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: আমাদের থেকে ছিনিয়ে নেওয়া অধিকার ফিরিয়ে আনবো: মেহবুবা মুফতি

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে ওই বৃদ্ধির নাম বালাসুব্রমনিয়া কুমার। ভিডিও এদিন প্রকাশ্যে এসেছে তাতে দেখা গেছে ফ্রিজার বক্সের মধ্যে শুয়ে চরম কষ্টের শ্বাস নিচ্ছেন মৃতপ্রায় ওই বৃদ্ধ। পুলিশের দাবি, বৃদ্ধ একটি বেসরকারি সংস্থায় স্টোর কিপারের চাকরি করতেন। অবসর নেওয়ার পরে তিনি থাকতেন ভাইয়ের সঙ্গে। সেই ভাই বিপত্নীক। তাঁর একটি মেয়ে আছে। সে প্রতিবন্ধী। ইতিমধ্যে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ কি কারনে দাদাকে এভাবে খুনের চেষ্টা করল ভাই তা জানতে জেরা করা হচ্ছে অভিযুক্ত ভাইকে। তবে পুলিশের প্রাথমিক অনুমান ওই বৃদ্ধের ভাই মানসিক ভারসাম্যহীন।