নেতাজি জয়ন্তীতে ভিক্টোরিয়াতে মুখ্যমন্ত্রীকে অপমান! প্রতিবাদ নুসরাতের

ঐতিহাসিক, ঐতিহ্যবাহী, গর্বের দিনে কলঙ্কিত শহর কলকাতা। বাঙালির কৃষ্টি-সংস্কৃতিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সরকারি অনুষ্ঠানে বাংলারই মুখ্যমন্ত্রীকে (CM) অপমান। নেতাজি জন্ম জয়ন্তীর (Netaji Birth Anniversary) কেন্দ্রীয় সরকারি অনুষ্ঠানে কার্যত ডেকে এনে অপমান করা হয় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। আর তারই প্রতিবাদে সরব (Protest) হলেন সাংসদ-অভিনেত্রী নুসরাত জাহান (Nusrat Jahan)।

আজ, শনিবার ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর সরকারি অনুষ্ঠানে “রাজনৈতিক স্লোগান” ওঠার তীব্র বিরোধিতা জানালেন তৃণমূল সংসদ সদস্য নুসরত জাহান। আজ ট্যুইট করে তিনি এই ঘটনার প্রতিবাদ জানান। টুইটে অভিনেত্রী লেখেন, “এমন ঘটনার আমি তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। স্বাধীনতা সংগ্রামী, দেশপ্রেমিক নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মজয়ন্তীর সরকারি অনুষ্ঠানে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় স্লোগান মেনে নেওয়া যায় না।”

উল্লেখ্য, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোসের জন্মদিবস উপলক্ষে কলকাতার ভিক্টোরিয়ায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে অপমানিত বোধ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধযায় (Mamata Banerjee)। মঞ্চে বক্তব্য রাখার জন্য উঠে দাঁড়ালে দর্শকাসন থেকে “জয় শ্রীরাম” ধ্বনি ওঠে। এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে যান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কাউকে আমন্ত্রণ করে তাঁকে অপমান করা উচিত নয়। এটি কোনও রাজনৈতিক দলের অনুষ্ঠান নয়। এটি সরকারি অনুষ্ঠান। তাই তার কিছু নিয়ম শৃঙ্খলা রয়েছে। তা মেনে চলা উচিত। তাই এদিন তিনি কোনও বক্তব্য রাখবেন না বলেই জানিয়ে দেন ক্ষুব্ধ মমতা।

এই অনুষ্ঠানেই তখন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে মঞ্চে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, রাজ্যপাল জাগদীপ ধনকড়, নেতাজির পরিবারের মানুষজন, অন্যান্য বিশিষ্ট অতিথিবর্গ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী থেকে শুরু করে বিশিষ্টজনেরা। সেখানেই এমন ঘটনা পশ্চিমবঙ্গের কৃষ্টি-সংস্কৃতিকে কালিমালিপ্ত করল।

আরও পড়ুন:নেতাজি স্মরণে বিজেপির “জয় শ্রীরাম” অসভ্যতা, প্রতিবাদে ভাষণ দিলেন না মমতা

Advt