‘তাণ্ডব’ নির্মাতা ও শিল্পীদের আগাম জামিনের আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট

‘তাণ্ডব’ নির্মাতা ও শিল্পীদের অনুরোধ খারিজ। ‘তাণ্ডব’ নিয়ে দায়ের হওয়া একাধিক গ্রেফতারি মামলায় আগাম সুরক্ষার দাবি নস্যাৎ করল সুপ্রিম কোর্ট। অভিনেতা মহম্মদ জিশান আয়ুব, অ্যামাজন প্রাইম ভিডিও (ইন্ডিয়া) ও ‘তাণ্ডব’ নির্মাতাদের গ্রেফতারির মামলায় আগাম সুরক্ষার আবেদন খারিজ করে দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। শীর্ষ আদালত তাঁদের নির্দেশ দিয়েছে, FIR খারিজ বা আগাম জামিনের আর্জি জানাতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে।

আলি আব্বস জাফর পরিচালিত ‘তাণ্ডব’ ওয়েব সিরিজ নিয়ে দেশজুড়ে একাধিক মামলা হয়েছে। বিশেষ করে বিজেপি শাসিত রাজ্যে অনেক মামলা করা হয়েছে। জানা যায়, পরিচালক আলি আব্বাস জাফর, প্রযোজক ফারহান আখতার, অভিনেতা সইফ আলি খান, মহম্মদ জিশান আয়ুব এবং অপর্ণা পুরোহিতের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হয়েছে। সকলের বিরুদ্ধেই ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৯৫এ, ২৯৮, ১৫৩এ এবং ৩৪ ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে। শিল্পী ও নির্মাতাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। সেই গ্রেফতারি এড়াতে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয় অ্যামাজন কর্তৃপক্ষ, নির্মাতারা ও শিল্পীরা। কিন্তু এদিন তাঁদের দাবি পুরোপুরি খারিজ করেছে সুপ্রিম কোর্ট। ‘তাণ্ডব’ ওয়েব সিরিজ নিয়ে মধ্যপ্রদেশ, হাসরথগঞ্জ, মুম্বই, ইন্দোর, গুরুগ্রাম ইত্যাদি একাধিক জায়গায় একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে।

বেঙ্গালুরুর কে আর পুরম পুলিশ স্টেশনে দায়ের করা FIR-এ অভিযোগকারী কিরণ আরাধ্যা উল্লেখ করেছিলেন, ‘তাণ্ডব’-এ দেখানো শিবা নামের চরিত্রের মুখে একাধিক অশ্লীল শব্দ শোনা গিয়েছে। এমনকী, শিবা চরিত্রটি আদতে হিন্দু ধর্মকে চরম অবমাননা করেই তৈরি হয়েছে। ওই সমাজকর্মীর আরও অভিযোগ, এই সিরিজ হিন্দু ধর্মের আবেগের উপর চরম আঘাত হেনেছে। এরপর ‘তাণ্ডব’-এর বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশে দায়ের হয়েছে মামলা। সেখানে কোনও নেতা নয় একজন পুলিশ অফিসার ওই মামলা দায়ের করেছে বলে জানা যায়। যার যেরে আরও বিপাকে পড়ে ‘তাণ্ডব’এর টিম।

বিতর্ক শুরু হওয়ার পর সম্প্রতি অ্যামাজন প্রাইম এবং ‘তাণ্ডবে’র নির্মাতারা আপত্তিকর অংশগুলি বাদ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন।

আরও পড়ুন-আইপিএলের নিলামের দিন ঠিক করে ফেলল বিসিসিআই

Advt