১৫ ঘণ্টা ধরে কৃষক আন্দোলন নিয়ে সরকার-বিরোধী আলোচনায় সহমত কেন্দ্র

parliament mplad

অবশেষে সহমত হল দুপক্ষ। চলতি অধিবেশনেই রাজ্যসভায় কৃষক আন্দোলন নিয়ে ১৫ ঘণ্টা ধরে আলোচনা হবে। এ ব্যাপারে  বিরোধীদের সঙ্গে আলোচনায় কেন্দ্রীয় সরকার সবুজ সংকেত দিয়েছে। কৃষিআইন নিয়ে মোট দশঘণ্টা আলোচনার কথা ছিল। কিন্তু লাগাতার বিরোধিতার জেরে আরও পাঁচ ঘণ্টা সময় বা়ড়িয়ে দেওয়া হয় আলোচনার জন্য। সেক্ষেত্রে আগামী দুদিন রাজ্যসভায় কোনও প্রশ্নোত্তর পর্ব হবে না। মোট পনেরো ঘণ্টা আলোচনা হবে।

এদিন সকাল নটায় রাজ্যসভা‌র অধিবেশন শুরু হয়। কৃষি আইন নিয়ে অধিবেশনের শুরুতেই ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্যসভা। পরিস্থিতি সামাল দিতে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু সাসপেন্ড করলেন তিন আপ সাংসদ সঞ্জয় সিং, এনডি গুপ্ত, সুশীল গুপ্তকে। গত দুদিনের মতোই বিরোধী সাংসদরা কৃষি আইনের বিরোধিতায় স্লোগান দিতে শুরু করেন। বেঙ্কাইয়া নাইডু তাঁদের সতর্ক করে চেয়ারে ফিরে যেতে বললেও কাজ হয়নি। আম আদমি পার্টির তিন সাংসদ এই সময় ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিলেন। সঞ্জয় সিং, এনডি গুপ্ত, সুশীল গুপ্তকে এই সময় নাম ধরেই বেরিয়ে যেতে বলেন নাইডু। পাঁচ মিনিটের জন্য সভা মুলতুবি হয়। ফের সভা শুরু হতে দেখা যায় সঞ্জয় সিংরা রাজ্যসভা ত্যাগ করেননি। চেয়ারম্যান মার্শাল ডেকে তাঁদের বের করে দিতে বলেন। তারপরে রাজ্যসভায় অভিভাষণ পর্ব শুরু হয়।

এদিন অধিবেশনের শুরুতেই কক্ষের চেয়ারম্যান ও উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু রাজ্যসভার সাংসদদের অনুরোধ করলেন, রাজ্যসভার কাজকর্ম চলাকালীন মোবাইল ফোন ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। যেভাবে অনুমতি ছাড়াই সভার কাজকর্ম মোবাইলে রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে, তাতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন তিনি।  উপরাষ্ট্রপতি বলেন, রাজ্যসভার কক্ষের ভিতরে মোবাইল ফোন ব্যবহারের ওপর কড়াকড়ি রয়েছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, কয়েকজন সদস্য কক্ষের মধ্যে বসেই তাঁদের মোবাইলে সভার কাজকর্ম রেকর্ড করছেন। এ ধরনের আচরণ সংসদীয় শিষ্টাচারের বিরোধী।  সদস্যদের উচিত, এমন অনভিপ্রেত কাজকর্ম থেকে বিরত থাকা। এভাবে অনুমতি ছাড়া সংসদের কাজকর্ম রেকর্ড করে তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়া সুযোগের অপব্যবহার ও সংসদের অবমাননা বলে মন্তব্য করেছেন তিনি। এ ব্যাপারে উপরাষ্ট্রপতি সংবাদ মাধ্যমকেও অনুরোধ করেছেন, যাতে রাজ্যসভার কাজকর্মের ছবি নিয়ম ভেঙে বাইরে না ছড়িয়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন-আজ অবসর সিবিআই ডিরেক্টরের, অন্তর্বর্তী দায়িত্বে প্রভীন সিনহা

Advt

 

Previous articleকয়লা পাচারকাণ্ড: রাজ্যের সঙ্গে সমন্বয় রেখে তদন্ত করতে হবে সিবিআইকে, নির্দেশ হাইকোর্টের
Next articleএকসঙ্গে ৮ হাসপাতালের প্রশাসনিক পদে ইস্তফা দিব্যেন্দুর, তুঙ্গে জল্পনা