৪৫ বছরের ইতিহাসে দেশে সর্বাধিক বেকারত্ব মোদি জমানায়, বলল তৃণমূল

মোদির জমানায় বেকারত্ব নিয়ে ফের সুর চড়াল তৃণমূল কংগ্রেস। তারা বলে, ৪৫ বছরের ইতিহাসে দেশে সর্বাধিক বেকারত্ব মোদি জমানায়। পাশাপাশি সোমবার বাংলায় প্রধানমন্ত্রী আসার আগেই মোদিকে কটাক্ষ করে ঘাসফুল শিবির। বলে,আজ প্রধানমন্ত্রী একটি ‘ট্যুরিস্ট গ্যাং’ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গে আসছেন বক্তৃতা দিতে।

আরও পড়ুন-ধর্ষক খোদ বিজেপি নেতা, তড়িঘড়ি দল থেকে বহিষ্কার

তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ৪৫ বছরের ইতিহাসে দেশে সর্বাধিক বেকারত্ব মোদি জমানায়। শুধুমাত্র করোনা মহামারির সময়েই দেশে চাকরি হারিয়েছেন ১ কোটি মানুষ। পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ায়নি কেন্দ্রীয় সরকার। অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে পশ্চিমবঙ্গ কীভাবে এগিয়েছে এদিন তার খতিয়ানও তুলে ধরে তৃণমূল। তাদের কথায়, মহামারির সময়েই বাংলায় বেকারত্ব কমেছে ৪০ শতাংশ। রাজ্যে শুধু তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রেই কর্মসংস্থান হয়েছে ১৩৩ শতাংশ। ২০১০-২০১১ আর্থিক বর্ষে চাকরি হয় ৯০ হাজার কর্মীর। সেখানে আজ ২০২০-২০২১ আর্থিক বছরে ২ লক্ষ ১০ হাজার বেকার ছেলেমেয়ে চাকরি পেয়েছেন। ফলে পরোক্ষভাবে কর্মসংস্থান হয়েছে ২০ লক্ষ মানুষের। ২০২০-২০২১ আর্থিক বছরে ১০০ দিনের কাজে রাজ্যে ৩২ কোটি ৬৫ লক্ষ কর্মদিবস তৈরি হয়েছে। মহামারির কারণে অসংগঠিত ক্ষেত্রে যাঁরা কাজ হারিয়েছেন, তাঁদেরকে প্রচেষ্টা প্রকল্পের মাধ্যমে এক হাজার টাকা করে মাসিক অর্থ সাহায্যের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Advt