রেলের তরফ থেকে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে বার্তা রেলমন্ত্রীর

স্ট্র্যান্ড রোডের ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় রেলের চূড়ান্ত অসহযোগিতার নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। তারই প্রত্যুত্তরে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল টুইট করে জানালেন রেল পূর্ণ সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর পাশে দাঁড়াতে চায়। গতকাল সন্ধ্যায় পূর্ব রেলের কয়লাঘাট বিল্ডিংয়ে বিধ্বংসী আগুনে ঝলসে, দমবন্ধ হয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯ জনের। ওই বিল্ডিংয়ের একটি লিফটের মধ্যে পূর্ব রেলের ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (সিসিএম) পার্থসারথি মণ্ডল এবং তাঁর রক্ষী সঞ্জয় সাহানির ঝলসে যাওয়া মৃতদেহ মিলেছে। অন্য একটি লিফটে মিলেছে ৪ দমকলকর্মী-সহ ৭ জনের দেহ। যে দমকলকর্মীরা প্রাণ হারালেন তাঁরা হলেন- গিরিশ দে, গৌরব বেজ, অনিরুদ্ধ জানা, বিমান পুরকায়েত। মৃত্যু হয়েছে হেয়ার স্ট্রিট থানার এএসআই অমিত ভাওয়ালেরও। তবে, এক রেল কর্মী-সহ ২ জনকে এখনও শনাক্ত করা যায়নি।

এদিকে আগুন লাগার কারণ ও অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যুর কারণ খুঁজতে ইতিমধ্যেই তিনটি পৃথক তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। একটি তদন্ত করবে কলকাতা পুলিশ। অপর একটি তদন্ত করবে দমকল। অন্য দিকে রেলও অন্য দিকে রেলও গোটা ঘটনার পৃথক তদন্ত করবে বলে জানানো হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডের কারণ খতিয়ে দেখতে রেলমন্ত্রকের পক্ষ থেকে চার সদস্যের উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ট্যুইটে রেলমন্ত্রী পীযুষ গোয়েল জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারের সঙ্গে সম্পূর্ণ সমন্বয় রেখেই কাজ করবেন রেলের আধিকারিকরা।রেলমন্ত্রী লিখেছেন, ‘রাজ্য সরকারকে সমস্ত দিক থেকে সাহায্য করবে রেল। নিরাপত্ত নিয়ে কোনও আপোষ করা হবে না। পূর্ব রেলের উচ্চপদস্থ কর্তা বলেছেন, ‘রেলের সব অফিসাররা ছিলেন। পুরো চেষ্টা ছিল। হয়ত ম্যাপ পাওয়া যায়নি। কিন্তু কর্মীরা চেষ্টা করেছিলেন। ক্ষয়ক্ষতি তো হয়েছেই।’

Advt