বাংলা থেকে নজর সরাননি ওয়েইসি, একাধিক আসনে দেবেন প্রার্থী

শুরুতে তৎপরতা চোখে পড়লেও পরে দেখা যায় বাংলা থেকে নিজেদের কিছুটা হলেও গুটিয়ে নিয়েছে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির(Asaduddin Owaisi) দল এআইএমআইএম(AIMIM)। তবে বঙ্গ নির্বাচনে হাতে যখন আর বাকি মাত্র ৩ দিন সেই মুহূর্তে ফের একবার নজর কাড়ল মিম। জানা গেল, বঙ্গ নির্বাচন(Bengal election) থেকে কোন ভাবেই সরে যাচ্ছে না আসাদউদ্দিন ওয়েইসির দল। আগামী ২৭ মার্চ প্রথম দফার ভোটের দিন রাজ্যে আসতে চলেছেন মিম প্রধান ওয়েইসি। ঐদিন মুর্শিদাবাদের সাগর দিঘিতে জনসভা করার কথা রয়েছে তার। আর সেখান থেকেই তিনি ঘোষণা করবেন কোন কোন আসনে প্রার্থী দেবে অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল-মুসলমিন।

বঙ্গ নির্বাচনের একেবারে শুরু থেকেই মিমকে বড় ফ্যাক্টর হিসেবে ধরা হচ্ছিল। যদিও নির্বাচনী আবহে রাজ্যে একেবারেই পা রাখেননি ওয়েইসি। ফলস্বরূপ মনে করা হচ্ছিল এবারের বঙ্গ নির্বাচন থেকে হয়তো সরে দাঁড়াচ্ছেন মিমের দল। এদিকে মিমের একাধিক নেতা দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। দলে যারা আছেন তারা আদৌ জানে না মিম এবার বাংলায় প্রার্থী দেবে কিনা? যদি দেয় তবে কোন আসনে প্রার্থী দেবে? এমন পরিস্থিতির মাঝে ফের একবার রাজ্য নেতাদের আশ্বস্ত করতে ময়দানে নামতে চলেছে ওয়েইসি। ২৭ মার্চ তিনি ঘোষণা করবেন এই রাজ্যে কোন কোন আসনে প্রার্থী দেবে দল। এদিকে ২৭ মার্চ রাজ্যের চতুর্থ দফা ভোটের মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ দিন। অর্থাৎ চাইলেও মিম পঞ্চম দফার আগে কোনও দফায় প্রার্থী দিতে পারছে না।

আরও পড়ুন:নিজের উত্তরসূরী হিসাবে প্রধান বিচারপতি বোবদের পছন্দ এনভি রামান্না

তবে জানা যাচ্ছে, বঙ্গে সেভাবে লড়াইয়ে নামতে এখনই ইচ্ছুক নয় আসাদউদ্দিন ওয়েইসির দল। শুধুমাত্র মুর্শিদাবাদে নিজেদের লড়াই সীমাবদ্ধ রাখতে চায় মিম। এক্ষেত্রে মুর্শিদাবাদ জেলায় ১৩ টি আসনে প্রার্থী দিতে পারে হায়দ্রাবাদের এই দলটি। উল্লেখ্য, আব্বাস সিদ্দিকীর সঙ্গে জোটের সম্ভাবনা ব্যর্থ হওয়ার পর বাংলা রাজনীতি থেকে কার্যত হারিয়ে যায় মিম। এরপরে জেলায় জেলায় মিমের নেতৃত্বরা তৃণমূলে যোগ দিতে শুরু করে। অন্যদিকে মুর্শিদাবাদে কোনও আসনে লড়াইয়ে নামছে না আব্বাস সিদ্দিকির দল। তার জন্যই হয়ত ওই জেলাকে পাখির চোখ করেছেন ওয়েইসি।

Advt