নন্দীগ্রামের মতো উত্তরেও তাণ্ডব করতে পারে বাহিনী: সতর্ক করলেন মমতা

নন্দীগ্রামে কেন্দ্রীয় বাহিনীর সহায়তায় ছাপ্পা দেওয়ার চেষ্টা করেছে বিজেপি (Bjp)। প্রচারে গিয়ে উত্তরবঙ্গের মানুষকে নিয়ে সতর্ক করলেন তৃণমূল (Tmc, ) নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bandopadhyay)। শুক্রবারে, দিনহাটা ও তুফানগঞ্জের সভাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান তৃণমূল নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ (Rabindranath Ghosh) তাঁর কাছে অভিযোগ করেছেন, পুলিশ সহায়তা করছে না। “কীভাবে পাবে? নির্বাচন কমিশন দেখে দেখে বিজেপির লোক বসাচ্ছে। আমাদের কথা শুনছে না। এখন নির্বাচনের নামে কেন্দ্রের নিরাপত্তাকর্মীদের নিয়ে এসেছে৷ নন্দীগ্রামে দেখলাম মানুষের ঘরে গিয়ে কেন্দ্রের বাহিনী তাণ্ডব করেছে। এখানেও করবে। সীমান্তে বিএসএফ (Bsf) করবে। এখানে সিআইএসএফ (Cisf) করবে। আমাদের পুলিশ ওদের ছেড়ে দেয়। পুলিশ দায়িত্ব পালন করে না। প্রতিদিন রদবদল করছে”। কটাক্ষ করে তৃণমূল নেত্রী বলেন, “অমিত শাহকে নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান করা হোক। অমিত শাহ নির্বাচন কমিশনকে চালাচ্ছেন”৷

আরও পড়ুন:বৃহস্পতিবার অস্ত্রোপচার শ্রেয়সের, পাঁচ মাস বিশ্রামে থাকবেন তিনি

এরপরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমি নন্দীগ্রামে ভালো ভাবে জিতব৷ তবে আমি জিতলে তো হবে না৷ অন্যপ্রার্থীদের জিততে হবে। তবে আমি দুশ পার হব”। ছিটমহল সমস্যার সমাধান থেকে শুরু করে আদিবাসীদের জমি দেওয়া- তৃণমূল সরকারের উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান তুলে ধরেন মমতা।

Advt