রোড-শোতে ভিড় নেই, বাতিলের ঝুঁকি না নিয়ে ফাঁকা মাঠেই ‘শো’ সারলেন নাড্ডা

আয়োজনের ত্রুটি ছিল না কোনও কিছুতেই। ফুল-মালা, ফেস্টুন, ব্যানার এবং প্রার্থীদের সঙ্গে নিয়ে এসি গাড়ির ছাদে উঠে রাজকীয় চালে হাত নাড়া। কিন্তু আয়োজনে খামতি না থাকলেও লোক হলো না বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার(JP nadda) রোড শোতে। যদিও নির্বাচনের(election) মাঝামাঝি পর্যায়ে এসে আগের মতো কর্মসূচি বাতিল এর ঝুঁকি নিলেন না নাড্ডাজি। লোক কম হলেও ব্যস্ত রাস্তায় বিশাল কনভয় সহ রোড শো(Road show) করলেন বিজেপি(BJP) সভাপতি। পাশাপাশি রোড শো থেকেই রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলের বিরুদ্ধে তীব্র আক্রমণ শানাতে দেখা গেল তাঁকে।

পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী মঙ্গলবার বঙ্গে ৩টি রোড শো ছিল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার। যার শুরুটা ছিল বর্ধমানের কালনা থেকে। দুপুর ১২ টা ৪৫ নাগাদ এই রোড শো শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা শুরু হতে হতে ২টোর বেশি বেজে যায়। তারপরও সেভাবে ভিড় না হওয়ায় অল্প সংখ্যক কর্মী সমর্থকদের সঙ্গে নিয়েই শুরু করেন রোড শো। বড়জোর ৩০ মিনিট সেখানে রোড শো করার পর বর্ধমানের খণ্ডঘোষ বিধানসভা কেন্দ্রের দিকে পা বাড়ান তিনি। সেখানেও দেখা যায় একই ছবি। এখানে ব্যস্ত রাস্তায় অল্পকিছু কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে রোড শো করতে দেখা যায় জেপি নাড্ডাকে। অবশ্য নাড্ডা নিরাপত্তায় যাতে কোনরকম ত্রুটি না থাকে তার জন্য বিশাল গাড়ির কনভয় হয়েছিল তাঁর সঙ্গে। সবশেষে নদীয়ার হরিণঘাটার রোড শোতেও সে চিত্রের ব্যাতিক্রম হয়নি।

আরও পড়ুন:বিজেপি প্রার্থী রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়ের পোস্ট করা ভিডিওর ফরেন্সিক তদন্তের দাবি কুণালের

উল্লেখ্য, বঙ্গে বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতাদের রোড শো ও জনসভায় এ ছবি প্রথমবার নয়। এর আগেও শুধুমাত্র লোক না হওয়ার কারণে একাধিক জনসভা বাতিল করতে হয়েছে অমিত শাহ ও জেপি নাড্ডার মত শীর্ষ নেতাদের। এর আগে লোক না হওয়ার কারণে ‘দিল্লিতে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক আছে’ এই অজুহাত দেখিয়ে শ্রীরামপুরে জনসভা বাতিল করেছিলেন জেপি নাড্ডা। ঝাড়গ্রামেও জনসভায় ভিড় না হওয়ার কারণে হেলিকপ্টার খারাপের অজুহাত তুলতে দেখা গিয়েছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে। যার জেরে কার্যত মুখ পুড়ে ছিল দিল্লির কেন্দ্রীয় নেতাদের। তবে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের মাঝামাঝি পর্বে এসে এই দুর্নাম কুড়িয়ে শো বাতিলের ঝুঁকি নিলেন না নাড্ডাজি।

Advt