কোচবিহারে তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীকে কুপিয়ে খুন, অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। তুফানগঞ্জ থানার চিলাখানার ঘটনা। মৃত তৃণমূল কর্মীর নাম শাহিনুর রহমান। বিজেপি হামলা চালায় বলে অভিযোগ৷ আজ চিলাখানা গ্রামে হাত বাধা অবস্থায় দেহ পরে আছে জমিতে। মাথার পেছনে ধারালো অস্ত্রের কোপ। রক্তাক্ত দেহ ঘিরে এলাকায় ভিড় করছেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। হামলার অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি৷ তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে আছে৷ মৃতের পরিবারের দাবি রাত থেকে নিখোজ ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস কর্মী। রাতভর খোজ করে পরিবার। সকালে তারা জানতে পারেন জমিতে পরে আছে দেহ। তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ তদন্তে নেমে জানায় দেহের হাত বাধা ছিল। দেহের নিচে কোনো পোষাক ছিল না। মাথার পেছেনে প্রায় তিনটি গভীর ধারালো অস্ত্রের কোপ দেখা গেছে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হওয়াতেই এই আঘাতের চিহ্ন বলে দাবি পুলিশের। তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহের চারপাশে ভিড় করে থাকা দলের কর্মীদের সরিয়ে দেয়। তৃণমূল কংগ্রেস নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, তাদের দলের কর্মীকে কুপিয়ে খুন করেছে বিজেপি। দলের সক্রিয় কর্মী ছিলেন শাহিনুর রহমান৷ যদিও বিজেপি জেলা সভানেত্রী মালতী রাভার দাবি এসব ভিত্তিহীন অভিযোগ। তৃণমূল কংগ্রেস হামলা করছে জেলা জুড়ে৷ চিলাখানাতে তৃণমূল কংগ্রেসের হামলায় বাড়ি ছাড়া হয়েছে প্রচুর বিজেপি কর্মী।