করোনার সংক্রমণের জেরে বন্ধ করে দেওয়া হল ডুয়ার্স

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ( coronavirus second wave) সংক্রমণ বৃদ্ধির জেরে এবার ডুয়ার্সের পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ (door’s will remain shut down) করে দেওয়া হল। সরকারি নির্দেশ অনুসারে মঙ্গলবার থেকেই বন্ধ হয়ে গেল অভয়ারাণ্য, ইকো ট্যুরিজম, ব্যাঘ্র সংরক্ষণ বনাঞ্চল এবং চিড়িয়াখানা। ডুয়ার্সের গরুমারা ও চাপরামরি অভয়ারণ্যতেও পর্যটকদের জন‍্য প্রবেশ বন্ধ হল। এর আগে করোনা প্রথম ঢেউয়ের ধাক্কার সময় প্রায় এক বছর ধরে বন্ধ ছিল হাতি সাফারি। কিন্তু কোভিড বিধি মেনে প্রায় আট মাস পর জঙ্গলে কার সাফারি শুরু হয়েছিল। কিন্তু আবার সব বন্ধ হয়ে যাওয়ায় পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা রীতিমতো চিন্তিত। ভবিষ্যতের নিয়ে তারা খুবই অনিশ্চয়তায় ভুগতে শুরু করেছেন। ডুয়ার্সের লাটাগুড়ি, মূর্তি, বাতাবাড়ি, ধুপঝোরা, মঙ্গলবাড়ি, মাথাচুলকা, চালসা-সহ বিভিন্ন এলাকার পর্যটন ব্যবসায় প্রচুর ক্ষতির আশঙ্কা।

জঙ্গল সাফারি এবং অভয়ারণ্য বন্ধ হয়ে গেলে মার খাবে জিপসি ব্যবসাও। জিপসি ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, অনিদিষ্টকালের জন্য জঙ্গল বন্ধ হয়ে গেলে জিপসি চালক, ট্যুরিস্ট গাইডরা কর্মহীন হয়ে পড়বেন। অনেকেই ব্যাংক বা বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে জিপসি কিনেছেন। তারা টাকাই বা শোধ করবেন কীভাবে? এক ই আশঙ্কা রিসর্ট মালিকদেরও। এমনিতেই ১৫ জুন থেকে বর্ষার সময় ডুয়ার্স বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু এবার এত আগে থেকে ব্যবসা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সবাই দুশ্চিন্তায় ভুগছেন।

Advt