৭ মাস পরে দেশের সংক্রমণ ১৫ হাজারের নীচে, কমল দৈনিক মৃত্যুও

উৎসব মরসুমে  রেকর্ড! সাত মাস পর ১৫ হাজারের নীচে নামল দেশের দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্তর সংখ্যা ১৪ হাজার ৩১৩। অন্যদিকে, অনেকটাই কমেছে করোনায় মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ১৮১।

আরও পড়ুন:নবান্নের ১৪ তলায় আগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন

গত ৩ মার্চ দেশে আক্রান্ত হয়েছিলেন ১৪ হাজার ৯৮৯ জন। তার পর থেকেই বাড়তে শুরু করে আক্রান্তের সংখ্যা। মে মাসে শুরুতে লাগামছাড়া হারে বাড়ছিল দশের দৈনিক সংক্রমণ। তার পর তা কমতে শুরু করে। এবং ১২ অক্টোবর তা ১৫ হাজারের নীচে নামল। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুসারে, দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৩৯ লক্ষ ৮৫ হাজার ৯২০ জন। মোট আক্রান্তের নিরিখে বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে ভারত। প্রথম আমেরিকা এবং তৃতীয় ব্রাজিল।কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুসারে, গোটা অতিমারি পর্বে দেশে মোট মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষ ৫০ হাজার ৯৬৩ জনের।

উৎসবের মরসুম শুরু থেকেই অনেকটাই কমেছে দেশের দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা। আক্রান্ত কম হওয়ায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও অনেকটাই কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় তা কমেছে ১২ হাজার ৪৪৭। দেশে এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২ লক্ষ ১৪ হাজার ৯০০ জন। তবে রাজ্যের করোনা সংক্রমণের হার নিয়ে চিন্তায় রয়েছেন চিকিৎসকরা। করোনা বিধিনিষেধ শিকেয় তুলে যেভাবে হুড়মুড়িয়ে প্যান্ডালে ভিড় জমাচ্ছে মানুষ, তাতে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন স্বাস্থ্য দফতর। তাঁদের আশঙ্কা পুজোর এই কটা দিন তৃতীয় ঢেউকে যেন লাগামছাড়া না করে তোলে।
advt 19

Previous articleনবান্নের ১৪ তলায় আগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের একাধিক ইঞ্জিন
Next articleমালদ্বীপ ম‍্যাচেই ফোকাসড ভারত অধিনায়ক সুনীল ছেত্রী