অন্ধ্র প্রদেশের বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ, মৃত ৫১

হু হু করে বাড়ছে জল। একাধিক রাস্তা জলের তলায়

অন্ধ্র প্রদেশের (Andhra Pradesh) বন্যা (Flood) পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার নিচ্ছে। হু হু করে বাড়ছে জল। একাধিক রাস্তা জলের তলায়। রাজ্যের অনেক জায়গায় সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে। রাজ্য জুড়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫১। শুধুমাত্র রবিবারেই মৃত্যু হয়েছে ১২ জনের। এ ছাড়া ট্রেন ও বাস পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ । মূলত রায়ালাসীমা ও নেলোর জেলার বিস্তীর্ণ অংশ জলের তলায়।
অন্ধ্র প্রদেশের নেলোরের জেলা প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে অন্তত ১৫ জনের দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। বিশেষত নীচু এলাকায় বসবাসকারী মানুষের জন্য উদ্বেগ বাড়ছে প্রশাসনের। পাপাগনি নদীর ওপর একটি সেতু ভেঙে পড়েছে।
কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে তিরুপতি। রেল ও সড়ক যোগাযোগও বিচ্ছিন্ন । কাডাপা- তিরুপতি, নেলোর- তিরুপতি ও বেঙ্গালুরু- তিরুপতি হাইওয়ে বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তিরুপতি যাওয়ার জন্য তিরুমালা এক্সপ্রেসে রওনা হয়েছিলেন ২ হাজার যাত্রী, তাঁদের কাডাপাতে নামিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাঁদের তিরুপতি নিয়ে যাওয়ার জন্য বিশেষ বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
তিরুমালা পাহাড়ের উপর অবস্থিত তিরুমালা মন্দিরের সঙ্গে সংযোগকারী চারটি প্রধান রাস্তাই সম্পূর্ণ জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। বন্ধ হয়ে গিয়েছে ঘাট রোড ও তিরুমালা পাহাড় লাগোয়া ছোট রাস্তাগুলিও। তিরুমালার জাপালি আঞ্জনেয়া স্বামীর মন্দিরেও জল ঢুকেছে। ঈশ্বরের মূর্তিও জলের তলায় চলে গিয়েছে।  আটকে পড়ায় পুণ্যার্থীদের জন্য তিরুমালা তিরুপতি দেবাস্থানম কমিটির তরফে বিনামূল্যে খাবার ও থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।
ইতিমধ্যেই উদ্ধারকাজে হাত লাগানোর জন্য রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের পাশাপাশি নামানো হয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরও। বায়ুসেনাও আকাশপথে উদ্ধারকাজ চালাতে সাহায্য করছে। গতকালই অনন্তপুর থেকে একটি জেসিবি মেশিনের উপর আশ্রয় নেওয়া ১০ জনকে হেলিকপ্টারের সাহায্যে উদ্ধার করা হয়। কাডাপা জেলাতেও বাসের উপর উঠে বহু যাত্রী বাঁচার চেষ্টা করেন। কিন্তু শেষ অবধি বন্যার জলে বাসগুলি ভেসে যাওয়ায়, তাদের উদ্ধার করা যায়নি বলেই জানা গিয়েছে।
এরইমধ্যে তিরুপতিতে জলাধারের দেওয়ালে ফাটল ধরার খবর মিলেছে। এর জেরে ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যেই ভারী বৃষ্টির জেরে একাধিক হাইওয়ে ও সড়ক বন্ধ হয়ে গিয়েছে। যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গিয়েছে একাধিক গ্রামের সঙ্গে।

Previous articleBehala:একইদিনে জোড়া হামলা, অস্ত্র দিয়ে কোপানোর অভিযোগ, ধৃত অভিযুক্ত