Tripura Municipal Election: ত্রিপুরায় অবাধ ছাপ্পার ভিডিও প্রকাশ্যে, ভোটারকে থামিয়ে ভোট দিচ্ছেন অন্যজন!‌

কারচুপির একটি ভিডিও প্রকাশ করে ত্রিপুরায় রিগিংয়ের অভিযোগ করেছে তৃণমূল

ত্রিপুরায় পুরভোটের আগে থেকেই সন্ত্রাস ও বিশৃঙ্খলা হবে বলে অভিযোগ তুলেছিল তৃণমূল। একাধিকবার এই অভিযোগে সোচ্চার হয়েছে তৃণমূল।এই অভিযোগ কে সামনে রেখে সুপ্রিম কোর্টে ভোট স্থগিতের আর্জি জানিয়েছিল তারা।যদিও সুপ্রিম কোর্ট সেই আর্জি খারিজ করে দেয়। শেষ পর্যন্ত সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে আজ নির্ধারিত দিনেই ত্রিপুরায় পুরভোট হচ্ছে। কড়া নিরাপত্তায় গোটা রাজ্যের প্রায় সব বুথকে মুড়ে ফেলেছে প্রশাসন।কিন্তু এটা যে শুধুই লোক দেখানো, একটি ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই অভিযোগের সত্যতা প্রমানিত হয়ে গেল।কারচুপির একটি ভিডিও প্রকাশ করে অভিযোগ করেছে তৃণমূল।
ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, কালো জামা পরা ওই যুবক অন্য ভোটারদের হয়ে দিব্যি ভোট দিচ্ছেন। ইভিএমকে আড়াল করে রাখা বক্সের এপারে দাঁড়িয়েই বোতাম টিপছেন তিনি। ঘরে বসে রয়েছেন নির্বাক ভোটকর্মীরা।বাইরে দাঁড়িয়ে রয়েছে নিরাপত্তারক্ষী। এসবকে তোয়াক্কা না করেই ওই যুবক ইভিএম–এর বোতাম টিপছেন।
ভিডিওটিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, এক বয়স্ক মহিলা ভোট দেওয়ার জন্য ইভিএম মেশিনের কাছে গেলেন। কিন্তু মুখে মাস্ক, কালো জামা পরা ওই যুবক এগিয়ে গিয়ে উল্টো দিক থেকে হাত বাড়িয়ে ইভিএম মেশিনের বোতাম টিপে দিলেন।ওই বৃদ্ধা কিছু না বলেই এরপর বেরিয়ে চলে যান। এর পর আর ব্যক্তি ভোট দেওয়ার সময়ও ওই যুবকটি এসেছিলেন ইভিএমের কাছে।
সন্ত্রাস এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে ভোটাররাও ভয়ে প্রতিবাদ করছেন না।ত্রিপুরা তৃণমূলের অফিসিয়াল টুইটার হ্যান্ডল থেকে শেয়ার করা হয়েছে ওই ভিডিওটি। ওই ভিডিওতে দাবি করা হয়েছে, ভিডিওটি আগরতলার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের একটি বুথের। ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থীর ছেলেই প্রকাশ্যে ছাপ্পা দিচ্ছেন বলে অভিযোগ।

আজ, বৃহস্পতিবার ত্রিপুরায় আগরতলায় পুরসভায় ভোট চলছে। ৬৪৪টি বুথে হবে ভোট। আগরতলার সব বুথকেই স্পর্শকাতর ঘোষণা করেছে কমিশন। বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা। তার পরেও চলছে রিগিং বলে অভিযোগ করল সিপিএম এবং তৃণমূল।
তাদের অভিযোগ, সব ভোটারকে বুথে ঢুকতেই দিচ্ছে না বিজেপি। মুখে মাস্ক, মাথায় হেলমেট পড়ে কয়েক জন দুষ্কৃতী বাড়ি বাড়ি ঘুরছে। ভোটারদের শাসিয়ে আসছে, যে ভোট দিতে যাওয়া চলবে না।
সিপিএম বিবৃতি দিয়ে এসবের জন্য বিজেপি–কে দায়ী করেছে। জানিয়েছে, বিরোধী দলগুলোর সমর্থকদের ভোট দিতে দিচ্ছে না বিজেপি দুষ্কৃতীরা।এমনকি,বিরোধী প্রার্থীদের মারধর, ভোট লুঠ সহ একাধিক অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল, সিপিএম সহ সব বিরোধীরা।

Previous articleElection Commission: EVM-এ পুরভোট, সন্ধের পরে নয় বড় মিটিং-মিছিল: আর কী জানাল কমিশন