দুর্নীতি-দুষ্কর্মে রং না দেখে কড়া পদক্ষেপ: দল-প্রশাসনকে একযোগে কড়া বার্তা মমতার

রাজ্যে কোথাও সাম্প্রদায়িকতায় কেউ যেন প্রশ্রয় না দেয়, আমিও যদি দিই, আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে: মুখ্যমন্ত্রী

নবান্নের বৈঠক থেকে একযোগে দল ও প্রশাসনকে কড়া বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। বুধবার, সব জেলাশাসক ও জেলার পুলিশ সুপারদের সঙ্গে ভার্চুয়াল (Virtual) বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানেই তিনি জেলা প্রশাসনকে বলেন, “এলাকায় দুর্নীতি-অবৈধ কাজ হলে কড়া ব্যবস্থা নিন। রঙ দেখবেন না”। মমতা বলেন, “পার্টি কাউকে টাকা তুলতে বলেনি। এটা মানুষের পার্টি। কেউ পকেট মানি তুললে তার দায় পার্টির নয়।” একইসঙ্গে তিনি বলেন, শুধু শাসকদল নয়, যে কোনও রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীরই এই কাজ করলে তার বিরুদ্ধে প্রশাসন যেন কড়া ব্যবস্থা নেয়। কেন্দ্রীয় সরকারি চাকরি পাইয়ে দেবে বলেও অনেকে টাকা তুলছে বলে বিজেপি নাম না করে তোপ দাগেন মমতা। তিনি নির্দেশ দেন, এরকম কিছু হলে প্রত্যেকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিন। একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “রাজ্যে কোথাও সাম্প্রদায়িকতাকে কেউ যেন প্রশ্রয় না দেয়। আমিও যদি দিই, আমার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।“

মুখ্যমন্ত্রী বেআইনি খনন নিয়ে জানান, নদী থেকে তোলা সাদা পাথর রাস্তার কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এতে রাস্তা মজবুত হয় না। এই পাথর অন্য কোনও ভাবে ব্যবহার করা যায় দেখতে হবে। বেআইনি খনন বন্ধেরও নির্দেশ দেন তিনি।

একই সঙ্গে পুলিশ-প্রশাসনকে সজাগ হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কোথাও দুষ্কৃতীরা বেআইনি ভাবে ব্রিজ তৈরি করে ফেলছে। সেটা পরে সরকারের তরফে ভেঙে ফেলা হয়েছে। এই বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসনকে সজাগ দৃষ্টি রাখার নির্দেশ দেন মমতা। অন্য রাজ্য থেকে এখানে অবৈধভাবে গরু, কয়লা আসছে। সেগুলি সীমান্ত দিয়ে পার হচ্ছে। সেটা দেখার দায়িত্ব বিএসএফের। কিন্তু তারা কোনও নজরদারি করছে না আর বাংলাকে পাচারের জন্য বদনাম করা হচ্ছে।

অবৈধ নির্মাণ ও গাছকাটা রুখতে সবরকম ব্যবস্থা নেবে প্রশাসন। কোথাও কোনও দুর্নীতি বরদাস্ত করা হবে না। এদিনের বৈঠক থেকে প্রশাসন ও দলকে একসঙ্গে বার্তা দেন মমতা।

আরও পড়ুন- মিডিয়া ট্রায়াল নয় আগে ক্রসচেক : সংবাদমাধ্যমের একাংশের ওপর ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী

 

Previous articleমিডিয়া ট্রায়াল নয় আগে ক্রসচেক : সংবাদমাধ্যমের একাংশের ওপর ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী