আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়, অপরাধীরা পালাতে পারবে না: এসপি কার্যালয়ের উদ্বোধনে স্পষ্ট বার্তা অভিষেকের

অভিষেক স্পষ্ট জানান, কোনও রাজনৈতিক নেতা বা তাঁদের ছত্রছায়ায় থাকা ব্যক্তি যদিও অপরাধ করে পার পেয়ে যাবেন ভাবেন, তাহলে ভুল করবেন। তিনি বলেন, কোনও অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটতে দেওয়া যাবে না।

আইনের উর্ধ্বে কেউ নয়, কোনও অপরাধীই পালাতে পারবে না- শনিবার, পৈলানে ডায়মন্ড হারবার পুলিশ জেলার এসপি কার্যালয়ের উদ্বোধনে এই বার্তাই দিলেন ডায়মন্ড হারবারের (Diamond Harbour) সাংসদ তথা তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তিনি বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশ মতো দুর্নীতি দেখলেই রং না দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নিক পুলিশ-প্রশাসন। এদিন, প্রথমেই জেলার পুলিশ সুপার অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়, পুলিশ জেলার আধিকারিক-কর্মীদের তাঁদের কাজের জন্য কুর্নিশ জানান তৃণমূল সাংসদ। বলেন, ২৪ ঘণ্টা মানুষের পাশে থাকে পুলিশ।

অভিষেক স্পষ্ট জানান, কোনও রাজনৈতিক নেতা বা তাঁদের ছত্রছায়ায় থাকা ব্যক্তি যদিও অপরাধ করে পার পেয়ে যাবেন ভাবেন, তাহলে ভুল করবেন। তিনি বলেন, কোনও অপ্রীতিকর ঘটনাও ঘটতে দেওয়া যাবে না। পুলিশকে নজর রাখতে হবে। ডান-বাঁ না দেখে পদক্ষেপ করতে হবে। উদাহরণ স্বরূপ অভিষেক বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যদি সুদীপ্ত সেনের মতো দুষ্কৃতীকে সুদূর কাশ্মীরের কার্গিল প্রান্ত থেকে ধরে আনতে পারেন, তাহলে এই বাংলায় কোনও রাজনৈতিক দলের ছাতার তলায় থাকা দুষ্কৃতী লুকিয়ে পার পাবে না।

পুলিশকে যে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটতে দেওয়া যাবে না বলে বার্তা দেন তৃণমূল সাংসদ। অভিষেক বলেন, সংবাদমাধ্যমকেও পুলিশ-প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে হবে। প্রয়োজনে মিডিয়া সেল খোলার পরামর্শ দেন তিনি। অর্থাৎ যে কথা মুখ্যমন্ত্রী বারবার বলেন, একই কথা শোনা গেল অভিষেকের কথাতেও। রাজনীতির রং না দেখে পুলিশকে তার ভূমিকা পালনের বার্তা দিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।

এর পাশাপাশি, করোনা মোকাবিলায় ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের লড়াইয়ের সাফল্যের কথা তুলে ধরেন সাংসদ অভিষেক। তিনি বলেন, সেই সময় সংক্রমণের হার ২ শতাংশের নীচে নামিয়ে আনতে সফল হয়েছিল ডায়মন্ড হারবার মডেল। পরে সারাদেশ সেই মডেল অনুকরণ করে। একই সঙ্গে তৃণমূল সাংসদ বলেন, দেশে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে থাকলেও, করোনা মোকাবিলায় প্রস্তুত থাকতে হবে। সকলকে মাস্ক পরার পরামর্শ দেন তিনি। উৎসবের মরসুমে ডায়মন্ড হারবারে যেন সম্প্রীতি-মৈত্রীর বন্ধন দৃঢ় থাকে সেদিকেও নজর দিতে বলেন তিনি।

Health department:কর্মচারীদের ক্যাশলেস চিকিৎসার উর্দ্ধসীমা বাড়াল রাজ্য সরকার

Previous articleHealth department:কর্মচারীদের ক্যাশলেস চিকিৎসার উর্দ্ধসীমা বাড়াল রাজ্য সরকার