ক্যান্সারে আক্রান্ত পুতিন, ইউক্রেন -রাশিয়ার যুদ্ধের কী হবে? 

রাশিয়ার রাষ্ট্রনায়ক ব্লাদমির পুতিন থাইরয়েডের দুরারোগ্য ক্যান্সারে আক্রান্ত । রোগটি এখন কী অবস্থায় আছে তা বিশদে জানা না গেলেও অবিলম্বে পুতিনের অস্ত্রোপচার করা প্রয়োজন এবং চিকিৎসকরা বারবার সে ব্যাপারে চাপ দিচ্ছেন তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই । মস্কোর উচ্চপদে কর্মরত এক সেনা কর্তার থেকে এই খবর ফাঁস হয়েছে বলে দাবি ক্রেমলিনের সংবাদ সংস্থার । পুতিন যদি অসুস্থ হয়ে থাকেন তাহলে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের ভবিষ্যৎ কী? রাশিয়া কি যুদ্ধের পথ থেকে পিছিয়ে আসবে?

তেমন সম্ভাবনা নেই । কারণ পুতিন যুদ্ধ জিইয়ে রাখতে চান। সেই কারণেই যতদিন পুতিন অসুস্থ থাকবেন বা কাজ করার ক্ষমতা থাকবে না ততদিন যুদ্ধের দায়িত্ব থাকবে রাশিয়ার নিরাপত্তা পরিষদের প্রধান নিকোলাই পাত্রুশেভ -এর উপরে। কারণ পুতিনের সঙ্গে মিলে , শলাপরামর্শ করে যুদ্ধের ব্লু প্রিন্ট তৈরি করেছিলেন নিকোলাই। কোন পথে যুদ্ধ হবে, কোন পথ ধরে এগোলে ক্রেমলিনকে জব্দ করা যাবে তা নাকি নিকোলাই এর মস্তিষ্কপ্রসূত। তাই পুতিন এই বিপদের সময়ে নিকোলাই-এর উপরেই ভরসা করতে চাইছেন।

কবে হবে অস্ত্রোপচার? চিকিৎসকরা নাকি চাইছেন যত দ্রুত সম্ভব । কিন্তু বাদ সাধছেন পুতিন নিজেই । আগামী ৯ মে -র আগে অস্ত্রোপচার হোক তা না কিন্তু পুতিন চান না। যদিও ৯ মে-র আগে বা পরে কী হতে পারে তা জানা যায়নি। তবে ওই সেনা হত্যার দাবি চিকিৎসকদের দেওয়া ওষুধ বারবার ব্যর্থ হচ্ছে। ক্যান্সারের যে পর্যায়ে এখন রয়েছে তা ওষুধে কাজ হচ্ছে না। অগত্যা অস্ত্রোপচারে একমাত্র পথ। শুধু ক্যান্সার নয়। পুতিন নাকি আরো অনেকগুলো রোগে আক্রান্ত। ক্যানসার ছাড়াও পারকিনসন্স রয়েছে। এ ছাড়া সিজোএফেক্টিভ ডিজঅর্ডারের সমস্যাও রয়েছে। এই দ্বিতীয় রোগটির কারণে স্কিৎজোফ্রেনিয়ার বেশ কিছু উপসর্গ রয়েছে পুতিনের। তাঁর হ্যালুসিনেশন বা অতিরঞ্জিত কল্পনাপ্রবণতা এবং ম্যানিয়া অর্থাৎ বাতিকগ্রস্ততার সমস্যাও আছে।

Previous articleHardik Pandya: আইপিএলের অভিষেকে দুরন্ত পারফরম্যান্স গুজরাত টাইটান্সের, রহস্যটা কী? জানালেন দলের অধিনায়ক