ধারালো অস্ত্রের আঘাতে গলার নলি কেটে খুন একই পরিবারের ৩ জন

প্রেমের জের! গলার নলি কেটে খুন করা হল একই পরিবারের তিনজনকে। প্রেমিকা তো বটেই বাদ গেলেন না তাঁর মা-বাবাও। আর এই নির্মমভাবে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নদিয়ার পলাশিপাড়ার ধাওয়াপাড়া এলাকায়। ইতিমধ্যেই দেহগুলিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে এই খুন।


আরও পড়ুন:ঈদের সকালে রিজওয়ানুরের মায়ের পাশে মমতা-অভিষেক

জানা গিয়েছে, নদিয়ার পলাশিপাড়ার রানিনগরের তুতবাগানের বাসিন্দা রাজোয়ার পরিবার। ডোমন রাজোয়ার ও সুমিত্রা রাজোয়ারের মেয়ে মালা। বিবাহিত হলেও পূর্বের প্রেমিকের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল তাঁর। এমনকি বাপের বাড়িতেও যাতায়াত ছিল। মালার স্বামী কর্মসূত্রে বাইরে থাকেন। তাই বাপের বাড়িতে কিছুদিন ছিলেন তিনি। এরইমধ্যে পূর্বের প্রেমিকের যাতায়াতের বিষয়টি মালার বাবার ও তাঁর স্বামীর অপছন্দ ছিল। তাই  ওই যুবককেও আর তাঁদের বাড়ি যেতে নিষেধ করেন মালার বাবা। পুলিশের অনুমান, এতেই ক্ষোভ জন্মায় ওই যুবকের।তাই সোমবার গভীর রাতে মালা ও তাঁর বাবা-মায়ের গলার নলি কেটে খুন করে ওই যুবক। ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত। তার খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানান, বাড়ির পাশের রাস্তায় মালার দেহ পড়ে থাকতে দেখেন তারা। এরপর ঘরে যেতেই উদ্ধার হয় তাঁর বাবা-মায়ের নলিকাটা দেহ। পাশবিক এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। স্থানীয়রাই খবর দেয় থানায়। পলাশিপাড়া থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার করেছে দেহ তিনটি।


পুলিশ সূত্রের খবর, স্থানীয় সূত্রে খবর, মৃতদের নাম নাম ডোমন মণ্ডল, সুমিত্রা মণ্ডল এবং মালা মণ্ডল। তাঁদের প্রত্যেকের শরীরের বিভিন্ন অংশে ছুরির আঘাতে চিহ্নও পাওয়া গিয়েছে। দেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে। তবে মালার স্বামীর দাবি, এক প্রতিবেশীর সঙ্গে ঝামেলা ছিল। তারা সকলকে শেষ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন।

Previous articleনাইট ক্লাবে রাহুল গান্ধী, ভিডিও ভাইরাল হতেই সরগরম রাজনীতি