বউবাজার নিয়ে ফিরহাদের ক্ষোভের মুখে মেট্রো কর্তৃপক্ষ

কেন এভাবে একের পর এক বাড়িতে ধস নামছে? বার বার বিপর্যয় কেন ঘটছে?  কেন সাবধানতা অবলম্বন করে কাজ করা হয়নি? শুক্রবারের বৈঠকে এভাবেই  একের পর এক প্রশ্নবাণে মেট্রো কর্তৃপক্ষকে বিদ্ধ করলেন কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। তবে মেট্রোর কাজ বন্ধ হচ্ছে না বলেই জানিয়েছেন মেয়র।

শুক্রবার বউবাজার পরিস্থিতি নিয়ে একটি পর্যালোচনা বৈঠকে বসেছিল কলকাতা পুরসভা এবং মেট্রো কর্তৃপক্ষ। সেখানেই মেয়রের ক্ষোভের মুখে পড়ে মেট্রো।  এদিনের বৈঠকেযাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষজ্ঞরাও উপস্থিত ছিলেন।  ফিরহাদ হাকিম এদিনের বৈঠকে জানিয়েছেন বৌবাজারের আরও ৮-৯টি বাড়ি থাকার উপযুক্ত নয়। সেগুলির পরিস্থতি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এদিন  মেট্রো কর্তৃপক্ষর  থেকে ভূমি পরীক্ষা, ফাটলধরা বাড়িগুলির স্বাস্থ্যপরীক্ষা, সমীক্ষার ডিজাইন-সহ একাধিক রিপোর্ট চেয়েছে কলকাতা পুরসভা। বউবাজার  কাণ্ড নিয়ে পর্যালোচনার জন্য কলকাতা পুরসভা একটি  বিশেষ তদন্তকারী কমিটি তৈরি করেছে। ওই দলে রয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দু’জন অধ্যাপক,  পুরসভার বিল্ডিং  বিভাগের বিশেষজ্ঞরা  এভং সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং দফতরের আধিকারিকেরা।  মেটৌর দেওয়া ওই  রিপোর্টগুলির উপর ভিত্তি করে একটি বিশ্লেষণী রিপোর্ট তৈরি করবে এই কমিটি।

 

Previous articleIndian railway:কাঁচ ভেঙে রক্তাক্ত শিশু, এক টুইটেই পদক্ষেপ করলেন রেলমন্ত্রী