অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা: গ্রেফতার সুকান্ত, বাধা প্রিয়াঙ্কাকে

হাওড়ায় যেতে চেয়ে গা জোয়ারি, অশান্তি ছড়ানো চেষ্টা। গ্রেফতার বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার (Sukanta Majumdar)। হাওড়ায় যেতে সুকান্তকে দফায় দফায় বাধা দেয় পুলিশ (Police)। পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝিয়ে তাঁকে আটকানোর চেষ্ট করা হয়। কিন্তু নিউটাউনের (Newtown) বাড়ির সামনে বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা মারমুখি হয়ে ওঠেন। জোর করে বেরনোর চেষ্টা করলে ধুন্ধুমার বাধে। এরপরে বাড়ি থেকে বেরিয়ে হাওড়া যাওয়ার চেষ্টা করলে দ্বিতীয় হুগলি সেতুর টোলপ্লাজায় গ্রেফতার হয় বিজেপি (BJP) রাজ্য সভাপতিকে।

হাওড়ার পরিস্থিতি সুষ্ঠু সমাধানের চেষ্টায় রাজ্য সরকার। বারবার সেই চেষ্টায় বাধা দিয়ে অশান্তির চেষ্ট চালাচ্ছে বিজেপি নেতৃত্ব। এদিন, দ্বিতীয় হুগলি সেতুর টোল প্লাজার কাছে কলকাতা ও হাওড়া কমিশনারেটের পুলিশ বাহিনী সুকান্তকে আটকায়। হাওড়া পুলিশ কমিশনারেটের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, ১৪৪ ধারা চলায় সেখানে যেতে দেওয়া যাবে না। কিন্তু এরপরও সেখানে যেতে চান সুকান্ত। এরপরই পুলিশের তরফে জানানো হয়, নিয়ম না মানলে তাঁকে গ্রেফতার করা হবে। সেই সময়ই সুকান্ত জানান তিনি গ্রেফতার হতে রাজি। এরপর প্রিজন ভ্যানে তুলে তাঁকে লালবাজারের সেন্ট্রাল লক-আপে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিকে, পাঁচলা যাওয়ার পথে দ্বিতীয় হুগলি সেতুতে প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়ালের গাড়ি আটকায় পুলিশ। ১৪৪ ধারা জারি থাকার কথা জানিয়ে তাঁকে আটকানো হলেও তিনি জোর করে যেতে চান। শেষে স্থানীয় একটি ক্লাবে বসে পড়েন প্রিয়াঙ্কা।

হাওড়ায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ইতিমধ্যে পুলিশের শীর্ষকর্তাদের নিয়ে দল গঠন করেছে রাজ্য সরকার। অশান্তি ছাড়ানো চেষ্টা করলে তা কড়া হাতে দমন করা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই পরিস্থিতিতে অশান্তিতে আরও উস্কানি দিতেই সেই জায়গায় বিজেপি নেতৃত্ব যেতে চাইছে বলে অভিযোগ।


Previous articleমৃত্যুকে জয় করে লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশনে ফিরে আসার স্মৃতি রোমন্থন অনুরাগের