বদ্রিনাথের মাটি মন্দাকিনীর উষ্ণ প্রস্রবনের জলে লক্ষ্মী প্রতিমা গড়লেন পুরুলিয়ার শিক্ষক !

বদ্রিনাথ থেকে মাটি আর মন্দাকিনী উষ্ণ প্রস্রবনের জল নিয়ে লক্ষ্মী প্রতিমা গড়ে তাক লাগালেন পুরুলিয়ার এই শিক্ষক

গিয়েছিলেন বেড়াতে, আর সেখান থেকেই নিয়ে এলেন মাটি আর জল। আর তা দিয়ে গড়ে ফেললেন লক্ষ্মী প্রতিমা। পুরুলিয়ার রাঁচি রোড বাইলেনের বাসিন্দা শিক্ষক শঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের প্রায় দেড় ফুটের লক্ষ্মী প্রতিমা এখন সবার নজর কাড়ছে। বদ্রিনাথ থেকে মাটি আর মন্দাকিনী উষ্ণ প্রস্রবনের জল নিয়ে লক্ষ্মী প্রতিমা (Kozagri Lakshmi Puja) গড়ে তাক লাগালেন পুরুলিয়ার এই শিক্ষক।

দেবীর আলয় তৈরি করতে ব্যবহার করেছেন থার্মোকল । যখন থার্মোকলকে একেবারে বর্জন করা হচ্ছে। তখন তা শিল্পকর্মে ব্যবহার করে পরিবেশকে দূষণমুক্ত রাখার বার্তা দিয়েছেন তিনি। সোনায় মুড়েছেন কোজাগরীকে। এখন শুধু দেবীর প্রাণ প্রতিষ্ঠার অপেক্ষা।

পুরুলিয়ার বেলকুড়ি রামকৃষ্ণ বিবেকানন্দ মিশনের এই সংস্কৃত শিক্ষক ১৬ বছর ধরে নিজের হাতে লক্ষ্মী প্রতিমা গড়ছেন। প্রতিবছরে নতুন নতুন আঙ্গিকে লক্ষ্মী প্রতিমা গড়া তিনি নেশায় পরিণত করেছেন। বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি ১১ রকমের মাটি দিয়ে লক্ষ্মী গড়ছিলেন। প্রতিমাযর শাড়িও তৈরি করেছেন শিক্ষক নিজের হাতে। তসর শিল্পের আঁতুর ঘর রঘুনাথপুর থেকে থান কিনে জড়ি, পার সেলাই করে শাড়ি তৈরি করে মাকে পরিয়েছেন। ঘরে থাকা নানা সোনার হার, কানের দুল, চিক, কোমর বন্ধনী, বাজুবন্ধ, হাতের চুড়ি, আংটি, সিঁথি, মুকুট, নথ, চুটকি দিয়ে সাজিয়েছেন ধনলক্ষ্মীকে। যা দেখে চোখ ফেরাতেই পারছেন না আশপাশের বাসিন্দারা।

Previous articleনাবালিকার মৃ*ত্যু নিয়ে রাজনীতি চাই না,জাঙ্গিপাড়ায় ঢুকতেই বাধার মুখে পড়ল কংগ্রেসের প্রতিনিধি দল