পাঁশকুড়ায় আতসবাজি কারখানায় বি*স্ফোরণে মৃত্যু, আহত বহু

যে বাড়িতে বোমা বাঁধার কাজ চলছিল, বিস্ফোরণে বাড়িটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে

সপ্তাহখানেক পরেই আলোর উৎসব দীপাবলি। ফের বোমা বি*স্ফোরণে কেঁপে উঠল পূর্ব মেদিনীপুরের পাঁশকুড়া।বোমা (bomb) বাঁধতে গিয়ে হঠাৎই বিস্ফোরণ (blast) হয়। মঙ্গলবার সকাল ১০টা নাগাদ পাঁশকুড়া থানার পূর্ব চিলকা গ্রামের এই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে ১৭ বছরের এক কিশোর। মৃতের নাম শম্ভু সামন্ত। জানা গিয়েছে, বি*স্ফোরণের তীব্রতা এতটাই বেশি ছিল যে শম্ভুর দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে। আহত হয়েছেন আরও এক মহিলা। স্বর্ণময়ী বক্তা নামে ৪০ বছর বয়সি ওই মহিলাকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাম্রলিপ্ত গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুপুরে তিনিও মারা যান।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, বোমা বাঁধতে গিয়ে বি*স্ফোরণের ঘটনাটি আতসবাজি (fire cracker) কারখানায় ঘটেছে। যে বাড়িতে বোমা বাঁধার কাজ চলছিল, বি*স্ফোরণে বাড়িটি সম্পূর্ণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এদিকে, স্থানীয় বাসিন্দারা দাবি করেছেন, ওই আতসবাজি কারখানায় দীর্ঘদিন ধরেই বেআইনিভাবে আতসবাজি (Illegal cracker making) তৈরির কাজ চলছিল। সামনেই কালীপুজো ও দীপাবলি। তাই জোর কদমে চলছিল বেআইনি আতসবাজি তৈরির কাজ। পাঁশকুড়া (Panskura) থানার পুলিশ (police) জানিয়েছে, তারা অভিযোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখছে, তদন্ত শুরু হয়েছে।

Previous articleফের দিল্লি সফরের সুকান্ত মজুমদার, নাড্ডার সঙ্গে বৈঠকের সম্ভাবনা