খুনের মামলায় অলিম্পিক্সে জোড়া পদকজয়ী কুস্তিগির সুশীল কুমারের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন আদালতের

দিল্লির ওই আদালত সুশীলদের বিরুদ্ধে খুন, খুনের চেষ্টা, হাঙ্গামা, অবৈধ জমায়েত, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র-সহ বেশ কয়েকটি অভিযোগে চার্জ গঠন করেছে

তরুণ কুস্তিগির সাগর ধনখড় খুনের মামলায় অলিম্পিক্সে জোড়া পদকজয়ী কুস্তিগির সুশীল কুমারের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করল দিল্লির একটি আদালত। সুশীল ছাড়া আরও ১৭ জনের বিরুদ্ধেও চার্জ গঠন করা হয়েছে।এখনও পলাতক দু জন। যদিও চার্জে নাম রয়েছে দুই পলাতক অভিযুক্তেরও।

দিল্লির ওই আদালত সুশীলদের বিরুদ্ধে খুন, খুনের চেষ্টা, হাঙ্গামা, অবৈধ জমায়েত, অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র-সহ বেশ কয়েকটি অভিযোগে চার্জ গঠন করেছে। জানা গিয়েছে সম্পত্তি নিয়ে বিবাদের জেরে ২০২১ সালের ৪ মে সুশীল এবং কয়েক জন সঙ্গী কুস্তির প্রাক্তন জুনিয়র জাতীয় চ্যাম্পিয়ন সাগর এবং তাঁর বন্ধুদের উপরে হামলা চালান বলে অভিযোগ। গুরুতর জখম হন সাগর। পরে তাঁর মৃত্যু হয়। ময়নাতদন্তে উঠে আসে, ভোঁতা কিছু বস্তু দিয়ে আঘাতের ফলে রক্তক্ষরণে সাগরের মৃত্যু হয়েছে। দিল্লি পুলিশ সুশীল-সহ ২০ জনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধারায় এফআইআর দায়ের করে। তার মধ্যে রয়েছে খুন, খুনের চেষ্টা, ষড়যন্ত্র, অপহরণ, ডাকাতির মতো অভিযোগ।

খুনের অভিযোগ ২০২১ সালের ২৩ মে গ্রেফতার করা হয় সুশীলকে। ২ অগস্ট পুলিশের প্রথম চার্জশিটে বলা হয়, সুশীল ষড়যন্ত্র করে এই হামলা চালান। তাঁর উদ্দেশ্য ছিল তরুণ কুস্তিগিরদের মধ্যে নিজের ক্ষমতা আবার ফিরিয়ে আনা।

২০২১ সালের ২ জুন থেকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রয়েছেন সুশীল। গত বছর ট্রায়াল কোর্টে সুশীলের জামিনের আবেদন খারিজ হয়ে গিয়েছিল। ট্রায়াল কোর্টের তরফে বলা হয়েছিল, প্রাথমিক ভাবে এই হামলার ঘটনার ভিডিও ফুটেজে সুশীলকে দেখা যাচ্ছে। অলিম্পিক্স কুস্তিতে জোড়া পদকজয়ীর তরফে জামিনের আবেদন করে বলা হয়েছিল, পুলিশ তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা সাজিয়েছে। যদিও সেই আবেদনে সাড়া দেয়নি আদালত।

 

Previous articleরাজ্যের বিজয়া সম্মিলনীতে তাজপুর বন্দর আদানি গোষ্ঠীকে হস্তান্তর, চাঁদের হাটে ঘরোয়া মেজাজে মুখ্যমন্ত্রী