হৃদরোগে প্রয়াত মহানায়িকার ‘হসপিটাল’ পুত্র মাস্টার তরুণ !

রোমান্টিক নায়িকার ছক ভেঙে সিঙ্গেল মাদারের ভূমিকায় দুর্দান্ত অভিনয় করেছিলেন মহানায়িকা। অথচ সেই ছবিতে অভিনয় করা শিশুশিল্পীর কথা বড়বেলায় আর মনে রাখিনি ইন্ডাস্ট্রি। কিছুটা অভিমানেই হয়তো আর দেশে ফেরা হল না।

৮ নভেম্বর ২০২২, বিদেশের মাটিতে আচমকা হৃদরোগে প্রয়াত হলেন (Passed Away)  অভিনেতা-পরিচালক তরুণ চট্টোপাধ্যায় (Tarun Chatterjee)। এক ঝলকে এই নামটা শুনলে তার মুখটা মনে করা হয়তো কঠিন। আসলে শিশুশিল্পী মাস্টার তরুণ (Master Tarun) বড়বেলায় ঠিক কেমন তা টালিগঞ্জের অনেকেই অজানা। তবে যাঁরা সুচিত্রা সেন (Suchitra Sen) অভিনীত ‘হসপিটাল’ (Hospital) ছবিটি দেখেছেন, তাঁদের স্মৃতির মণিকোঠায় হয়তো আজও উজ্জ্বল ডক্টর শর্বরীর সেই সন্তান মাস্টার তরুণ (Master Tarun)। রোমান্টিক নায়িকার ছক ভেঙে সিঙ্গেল মাদারের ভূমিকায় দুর্দান্ত অভিনয় করেছিলেন মহানায়িকা। অথচ সেই ছবিতে অভিনয় করা শিশুশিল্পীর কথা বড়বেলায় আর মনে রাখিনি ইন্ডাস্ট্রি। কিছুটা অভিমানেই হয়তো আর দেশে ফেরা হল না। ৬৯ বছর বয়সে বিদেশের মাটিতেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ।

তপন সিনহার(Tapan Sinha) ‘ক্ষণিকের অতিথি’ ছবিতে রুমা গুহঠাকুরতার ছেলের ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যায় মাস্টার তরুণকে, সে যেন এক আইকনিক চরিত্র। কলকাতার সুকিয়া স্ট্রিটে আদি বাড়ি তরুণ চট্টোপাধ্যায়ের। বাবার সঙ্গে টালিগঞ্জ স্টুডিও পাড়ায় যেতেন অভিনয়ের জন্য। কোনও ফিল্মি পরিবার থেকে না এসেও সহজাত প্রতিভার জোরেই ফিল্মে সুযোগ পান তিনি। ঋত্বিক ঘটকের ‘সুবর্ণরেখা’ ছবিতেও অভিনয় করেন তিনি। তবে বাঙালির স্মৃতিপটে সুশীল মজুমদার পরিচালিত ‘হসপিটাল’ ছবিতে সুচিত্রা সেন ও অশোক কুমারের ছেলের চরিত্রেই অনবদ্য মাস্টার তরুণ। তাঁকে বড় হতে দেখেনি কলকাতার বিনোদন জগত (Entertainment Industry)। দেশ ছেড়ে আমেরিকার নিউ জার্সিতে গিয়ে সেদেশেরই নাগরিকত্ব নিয়ে নেন। কিন্তু অভিনয় জগতকে ভালোবেসেছেন আজীবন তাই বিদেশে একটি ছোট নাট্যদলে অভিনয় ও পরিচালনা করতেন তিনি। তাঁদের নাট্যদল নিউ ইয়র্কে বেশ কিছু শো করেছিল বলে জানা যায় । পরিচালক হিসেবে কলকাতায় এসেছিলেন ২০১০ সালে । ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta) , কল্যাণ রায় (Kalyan Roy) দের নিয়ে ‘অভিসন্ধি’ নামের একটি অন্য ধারার ছবি করেন। যদিও সে ছবি বক্স অফিস মাতাতে পারিনি।  কলকাতার বাংলা ছবির সঙ্গে বড় বয়সে মাস্টার তরুণের নিবিড় সম্পর্ক আর গড়ে ওঠেনি। এরপর বিদেশেই জীবনের শেষ অধ্যায়। তাঁর পরিবার সূত্রে জানা গেছে বেশ কিছুদিন ধরেই শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। অবশেষে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন ‘হসপিটাল’-এর সেই ছেলেটা।

Previous articleদিলীপের প্রসন্ন যোগ, বিজেপি নেতাকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি তৃণমূলের