পোষ্য বাজপাখিকে মারার অভিযোগ! রাগে মাকে পুড়িয়ে মারল যুবক

স্থানীয় সূত্রে খবর, সাবিত্রী তাঁর ছেলেকে নিয়ে একাই বাড়িতে বসবাস করতেন। তাঁর স্বামী অন্য এক মহিলার সঙ্গে বর্তমানে কলকাতায় থাকেন। সম্প্রতি ভোলানাথ বাড়িতে একটি বাজপাখি পুষেছিল। ছেলের এমন কার্যকলাপ মোটেই পছন্দ ছিল না সাবিত্রী দেবীর। সেই পাখি নিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রায়ই বচসা হতে বলে অভিযোগ প্রতিবেশীদের।

ছেলের অত্যন্ত সখের ছিল বাজপাখিটি। তাই বাড়িতে সে পুষেছিল। কিন্তু তাতে বাধ সাধেন মা। কয়েকদিন ধরে এই নিয়ে ঝামেলাও চলছিল দুজনের মধ্যে। এরই মাঝে বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় প্রিয় পোষ্যটির দেহ। আর তাতেই মাথায় খুন চেপে যায়। মারধরের পর মাকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল ওই যুবকের বিরুদ্ধে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার (South 24 pgs) গোসাবা থানার (Gosaba) বালি ২ পঞ্চায়েতের বিজয়নগর গ্রামের ঘটনা। ঘটনার জেরে এলাকায় তীব্র চাঞ্চলয় ছড়িয়েছে। মৃতের নাম সাবিত্রী বিশ্বাস (৩৮)। রবিবার সকালে গোসাবা থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তে (Post Mortem) পাঠায়। অভিযুক্ত (Accused) ভোলানাথ বিশ্বাসকে গ্রেফতার করে তদন্ত (Investigation) শুরু হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সাবিত্রী তাঁর ছেলেকে নিয়ে একাই বাড়িতে বসবাস করতেন। তাঁর স্বামী অন্য এক মহিলার সঙ্গে বর্তমানে কলকাতায় থাকেন। সম্প্রতি ভোলানাথ বাড়িতে একটি বাজপাখি পুষেছিল। ছেলের এমন কার্যকলাপ মোটেই পছন্দ ছিল না সাবিত্রী দেবীর। সেই পাখি নিয়ে দু’জনের মধ্যে প্রায়ই বচসা হতে বলে অভিযোগ প্রতিবেশীদের।

অভিযোগ, শনিবার রাতে ছেলে বাড়িতে না থাকায় পাখিটিকে মেরে ফেলেন সাবিত্রী দেবী। এরপর রাতে ভোলানাথ বাড়ি ফিরে দেখেন, তাঁর পোষ্য বাজপাখি মৃ*ত অবস্থায় পড়ে রয়েছে। প্রিয় পোষ্যের মৃত্যুতে মাথায় খু*ন চেপে যায় ভোলানাথের। আচমকা নিজের মা’কে বেধড়ক মারধর করতে শুরু করে। এরপরে ঘরের দরজা বন্ধ করে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। বন্ধ অবস্থায় ঘরের মধ্যেই পুড়ে মারা যান ওই মহিলা।

Previous articleবদলা নিলেন শামি, শোয়েব আখতারের টুইটের পাল্টা দিলেন ভারতীয় পেসার, ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়