পাকিস্তানী তরুণীর হানি ট্রাপের ফাঁদ! বিদেশমন্ত্রকের অন্দরেই থাকা পাক গুপ্তচরকে গ্রেফতার

বিদেশমন্ত্রকের অন্দরেই পাক গুপ্তচর রয়েছে, শত্রু দেশকে দেশের অভ্যন্তরীণ তথ্য পাচার করছে, সে খবর আগে থেকেই ছিল গোয়েন্দাদের কাছে। ফলে দিল্লিতে বিদেশ মন্ত্রকে যাঁরা চাকরি করেন, তাঁদের উপর নজর রাখছিল

গোয়েন্দাদের কাছে গোপন সূত্রে খবর ছিল। চলছিল কড়া নজরদারি। খোদ বিদেশমন্ত্রকের অন্দরেই পাক গুপ্তচর! হ্যানি ট্রাপের শিকার এক গাড়ি চালক! একাধিক তথ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে দিল্লি পুলিশ। শুরু হয়েছে জেরা।

বিদেশমন্ত্রকের অন্দরেই পাক গুপ্তচর রয়েছে, শত্রু দেশকে দেশের অভ্যন্তরীণ তথ্য পাচার করছে, সে খবর আগে থেকেই ছিল গোয়েন্দাদের কাছে। ফলে দিল্লিতে বিদেশ মন্ত্রকে যাঁরা চাকরি করেন, তাঁদের উপর নজর রাখছিল একটি এজেন্সি।। ধৃত ব্যক্তি বিদেশমন্ত্রকেই গাড়ির চালাতেন। ড্রাইভার পদে কর্মরত ছিলেন তিনি। তার কাজকর্মে সন্দেহ হয় এজেন্সির কর্মীদের। বিষয়টি জানানো হয় দিল্লি পুলিশকে। এদিন দিল্লির জওহরলাল ভবন থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়।

চাঞ্চল্যকর তথ্য এসেছিল গোয়েন্দাদের হাতে। এক পাক তরুণীর সঙ্গে যোগাযোগ ছিল বিদেশমন্ত্রকের ড্রাইভারের! সোশ্যাল মিডিয়ায় নিয়মিত কথা হত দু’জনের। শুধু তাই নয়, নারীসঙ্গের লোভ বা হানি ট্রাপের শিকার হয়েছেন অভিযুক্ত এবং ইতিমধ্যেই বিদেশমন্ত্রকের গোপন তথ্যও পাচার করে দিয়েছেন! ধৃতের বিরুদ্ধে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে মামলা রুজু করা হয়েছে।

এর আগে, এর আগেও পাক গুপ্তচরদের হানিট্র্যাপে ফাঁদে পা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছে একাধিক সেনা জওয়ান। গত অক্টোবরে পাক গুপ্তচরদের তথ্য পাচারের অভিযোগে রবিপ্রকাশ মীনা নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে রাজস্থান পুলিশ।

আরও পড়ুন:চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন ঐন্দ্রিলা, আশায় বুক বাঁধছেন সব্যসাচী

 

 

Previous articleচিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন ঐন্দ্রিলা, আশায় বুক বাঁধছেন সব্যসাচী