বাংলাতেই অনুব্রতকে জেরা করুক ED: দিল্লি হাই কোর্টে আর্জি সিব্বলের, পরবর্তী শুনানি শুক্রবার

দিল্লি হাই কোর্টে ইডির আবেদনের বিরোধিতা করে সিব্বল বলেন, গরুপাচার মামলার অধিকাংশ অভিযোগ উঠেছে পশ্চিমবঙ্গে।

গরু পাচার মামলায় অধিকাংশ অভিযোগ উঠেছে পশ্চিমবঙ্গে। ফলে বাংলাতেই ধৃত বীরভূমের জেলা তৃণমূল (TMC) সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলকে (Anubrata Mandal) হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করুক এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। ED-র আবেদনের বিরুদ্ধে দিল্লি হাই কোর্টে (Delhi High Court) এই আবেদন জানালেন তাঁর আইনজীবী কপিল সিব্বল (Kapil Sibal)। এদিকে এই শুনানির প্রেক্ষিতে দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালতে অনুব্রত মামলার শুনানি স্থগিত।

মঙ্গলবার, দিল্লি হাই কোর্টে ইডির আবেদনের বিরোধিতা করে সিব্বল বলেন, গরুপাচার মামলার অধিকাংশ অভিযোগ উঠেছে পশ্চিমবঙ্গে। ফলে সে রাজ্যেই অনুব্রতকে হেফাজতে নিয়ে জেরা করুক ইডি। এই যুক্তির বিরোধিতা করে ইডি। অনুব্রতের দেহরক্ষী এই মামলায় ধৃত সায়গল হোসেনের উদাহরণ টেনে ইডির তরফে বলা হয়, সায়গলকেও দিল্লিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দুপক্ষের শুনানির পর মামলার পরবর্তী শুনানি শুক্রবার বলে জানিয়েছে দিল্লি হাই কোর্ট।

গরুপাচার মামলায় গত বৃহস্পতিবার অনুব্রতকে আসানসোলের সংশোধনাগারে প্রায় ৫ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি। এরপরই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। অনুব্রতকে দিল্লি নিয়ে যাওয়ার জন্য তৎপর হয় ইডি। গত শুক্রবার দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ আদালতে তাঁর নামে ‘প্রোডাকশন ওয়ারেন্ট’ জারি করার আবেদন করেন ইডির আইনজীবীরা। সেই আবেদন গ্রহণ করেও কোনও নির্দেশ দেননি বিচারক। হাই কোর্টে শুক্রবার শুনানির পরে রাউস অ্যাভিনিউ আদালতে শনিবার অর্থাৎ ২৬ তারিখ মামলার শুনানির সম্ভাবনা।

 

Previous articleঅস্ট্রেলিয়া ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপের অভিযান শুরু করছে ফ্রান্স, এমবাপে-জিরুঁ জুটিতে আস্থা রাখছেন দেশঁ