গোবরে পরমাণু বিকিরণ প্রতিরোধ সম্ভব, আজব দাবি গুজরাট আদালতের

গরু ও গোবরের উপকারিতা নিয়ে এতদিন নানান আজব দাবি করে আসছিলেন বিজেপি নেতারা(BJP)। এবার সেই দাবি শোনা গেল বিজেপি শাসিত গুজরাটের আদালতে(Gujrat Court)। গুজরাতের তাপি জেলার একটি নিম্ন আদালতে দাবি করা হল, বিজ্ঞানে প্রমাণিত গরুর গোবর(Cow Dunk) বাড়িতে লেপা থাকলে তা পরমাণু বিকিরণ প্রতিরোধ করতে সম্ভব। শুধু তাই নয় ওই নিম্ন আদালতের বিচারপতি সমীর ব্যাসের দাবি, গরুর প্রস্রাব বহু জটিল রোগ সারাতে সক্ষম। আদালতের এহেন পর্যবেক্ষনের পর স্বাভাবিকভাবেই জল্পনা শুরু হয়েছে।

গুজরাটের বছর ২২-এর এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল তিনি ‘বেআইনি’ ভাবে গরু এবং বলদ নিয়ে মহারাষ্ট্রে পৌঁছে দিতেন। এই মামলায় ওই যুবককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের সাজা শুনিয়েছে গুজরাটের ওই নিম্ন আদালত। এই সাজা ঘোষণা করার সময় বিচারক সমীর ব্যাস মন্তব্য করেন, “গরু স্রেফ একটি পশু নয়, গরু আমাদের মা।” একইসঙ্গে গরু সম্পর্কে আরও অদ্ভুত সব দাবি করেন বিচারক। রায়ে তিনি লেখেন, “পৃথিবীর সমস্ত সমস্যা মিটে যাবে যে দিন গরুর গা থেকে এক ফোঁটা রক্তও মাটিতে পড়বে না। আমরা গোরক্ষার কথা বলি ঠিকই, কিন্তু বাস্তবে তার কোনও প্রতিফলন নেই। গো নিধন এবং বেআইনি গো পরিবহণ রোজ চলছে। এটা সভ্য সমাজের কাছে অত্যন্ত লজ্জার।”

বিচারক জানিয়েছিলেন, ৭৫ বছর হয়ে গিয়েছে ভারত স্বাধীন হয়েছে, কিন্তু গো নিধনের ঘটনা কমার বদলে ক্রমশ বেড়ে যাচ্ছে। তিনি বলেন, “গরু একটি ধর্মীয় প্রতীক। গো সম্পদের উপর নির্ভর করে যে সমস্ত কৃষিজ ফলন হয়, তা আমাদের বহু রোগব্যাধি থেকে রক্ষা করে। বিজ্ঞান প্রমাণ করে দিয়েছে, গরুর গোবর লেপা থাকলে সেই বাড়ি পারমাণবিক বিকিরণ থেকেও সুরক্ষিত থাকে। গরুর প্রস্রাবে বহু জটিল দুরারোগ্য রোগও সেরে যায়।” শুধু তাই নয় গরুর প্রয়োজনীয়তা বোঝাতে তিনি বেশ কিছু সংস্কৃত শ্লোকও উদ্ধৃত করেন।

Previous articleআপ-বিজেপি সংঘাতে ফের ভেস্তে গেল দিল্লি পুরসভার মেয়র নির্বাচন প্রক্রিয়া