দ্বিতীয় শ্রেণির এসি কোচের বিপুল ভাড়া বৃদ্ধি! কেন্দ্রকে তু.লোধনা মমতার

রেলের ভাড়া বৃদ্ধিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) নীরব। সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস। এই বিষয় নিয়ে এক্স হ্যান্ডেলে (X Handle) কেন্দ্রের মোদি সরকারকে তুলোধনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Bandopadhyay)। তিনিও এক সময় রেলমন্ত্রী ছিলেন। সেই উদাহরণ তুলে ধরে সাধারণ মানুষের উপর আর্থিক বোঝা চাপানো নিয়ে রেল মন্ত্রককে নিশানা করেন মমতা।

দ্বিতীয় শ্রেণির এসি কোচের একটি টিকিটের দাম যদি ৯,৩৯৫ টাকা হয় তাহলে চার-পাঁচজনের পরিবারের একপিঠের রেল সফরের খরচ দাঁড়ায় প্রায় পঞ্চাশ হাজার টাকা। এর সঙ্গে রয়েছে আনুষঙ্গিক খরচ। সাধারণ মানুষের প্রতি এই চূড়ান্ত অবহেলা, উদাসীনতা নিয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নিজের এক্স হ্যান্ডেলে (X Handle) তিনি লেখেন, “রেলের যাত্রীদের ভাড়া অত্যাধিক বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এমনকী ‘সুবিধা’ ট্রেনের ভাড়া কখনও কখনও বিমানের ভাড়ার চেয়ে বেশি হয়ে যাচ্ছে। জরুরি পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষ কোথায় যাবে? ভাড়া বৃদ্ধি রোধ করতে হবে! নিরাপত্তা বিষয়ক সবকিছুতে বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। রেলমন্ত্রী থাকাকালীন আমি অ্যান্টি-কলিশন ডিভাইস এবং অন্যান্য দুর্ঘটনা বিরোধী ব্যবস্থা চালু করেছিলাম! ক্রমবর্ধমান ট্রেন দুর্ঘটনা এড়াতে কেন এগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে না, অথচ ভাড়া বৃদ্ধির ওপর কোন নিয়ন্ত্রণ থাকছে না।”
https://x.com/MamataOfficial/status/1726137260737995205?t=Y3l7yBEKSneSxrPTzgt6IQ&s=08

রেল রক্ষণাবেক্ষণের ন্যূনতম কাজ হয় না- অভিযোগ সব বিরোধীদের। পরপর এতগুলি ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনায় কয়েকশো মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। দীর্ঘদিন ধরেই রেলের খাবারের মান পড়েছে সেই নিয়ে যাত্রীদের ক্ষোভ তুঙ্গে। অথচ দফায় দফায় বেড়েছে টিকিটের দাম। বন্দে ভারতের মতো দেখনদারির ট্রেনের উদ্বোধন করে মোদি সরকার ভারতের বিকাশ তুলে ধরতে চেয়েছে দেশবাসীর কাছে। টাকা তুলতে বেসরকারি সংস্থার কাছে বেচে দিয়েছে স্টেশনও। কিন্তু দেশের লাইফলাইন রেলের জন্য যে বাজেট বরাদ্দ থাকা উচিত তার ছিঁটেফোঁটাও নেই। কায়দা করতে গিয়ে রেল বাজেটটাও তুলে দিয়েছে মোদি সরকার। এই নিয়ে তোপ দেখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।


Previous articleহা.মাসের ৫০ জি.ম্মিকে মুক্তি দেওয়ার চুক্তিতে আদৌ রাজি হবে ই.জরায়েল?
Next articleসেরার শিরোপা হাত.ছাড়া ভারতের, এবারের বিশ্বসুন্দরী মিস নিকারাগুয়া!