আসেনি কোনও প্রস্তাব! ASI-র দাবি উড়িয়ে পুরীর ‘রত্নভাণ্ডার’ নিয়ে নয়া নাটক বিজেপির 

কবে খোলা হবে পুরীর (Puri) জগন্নাথ মন্দিরের (Jagannath Temple) রত্নভাণ্ডার (Jewellery Box)? যা নিয়ে বিস্তর জল্পনা ছিল। অবশেষে বুধবার জানা গিয়েছিল সেই দিনক্ষণ। রথযাত্রার পর অর্থাৎ ৮ জুলাই খুলবে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের রত্নভাণ্ডারের দরজা। বুধবার এমন দাবি করেছিল এএসআই (Archeological Survey of India)। কিন্তু সেই যুক্তি উড়িয়ে ওড়িশা সরকার (Odissa Government) সাফ জানিয়ে দিল, জগন্নাথ মন্দিরের ম্যানেজিং কমিটির তরফে এমন কোনও প্রস্তাব এখনও প্রশাসনের কাছে এসে পৌঁছয়নি।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওড়িশার আইনমন্ত্রী পৃথ্বীরাজ হরিচন্দন জানিয়েছেন, এমন কোনও সিদ্ধান্ত এখনও নেয়নি ওড়িশা সরকার। ভবিষ্যতে এমন কোনও প্রস্তাব আসলে পদক্ষেপ করা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। ভোটের আগে পুরীর রত্নমন্দিরের দরজা খোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি অভিযোগ করেছিলেন, পুরীর রত্নভাণ্ডারের চাবিই নাকি হারিয়ে ফেলেছে নবীন পট্টনায়েক সরকার। বিজেপি ক্ষমতায় এলে রত্নভাণ্ডার খোলা হবে। কিন্তু ভোট মিটতেই রত্নভাণ্ডার নিয়ে নয়া রাজনীতি শুরু ওড়িশার নয়া বিজেপি সরকারের।

পুরীর মন্দিরের গোপন কক্ষে সাতটি ঘর আছে। সেই ঘরগুলিকেই রত্নভাণ্ডার বলা হয়। মন্দিরের রত্নভাণ্ডার শেষবার খোলা হয়েছিল ১৯৭৮ সালে। হাইকোর্টের নির্দেশে হলফনামায় মন্দির কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, রত্নভাণ্ডারে ১৫০ কেজি সোনার পাশাপাশি ১৮৪ কেজি রুপো রয়েছে। ১৯৭৮ সালে শেষবার পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের রত্নভাণ্ডারের খতিয়ান নেওয়া হয়েছিল।


Previous articleপ্রতিশ্রুতি পূরণ! লোকসভা ভোট মিটতেই হুগলির দইকে বিশ্ববিখ্যাত করার অঙ্গীকার রচনার 
Next articleহাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরলেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সন্ধ্যা রায়