“তেরে লিয়ে হাম জিয়ে”: লতা ছাড়া আর কিছুই নেই এই ভক্তের জীবনে

‘‌তেরে লিয়ে হাম জিয়ে…।’‌
কিং অফ মেলডি লতা মঙ্গেশকরের সেই গান এখনও হৃদয়ে উদ্বেল জাগায়। আর সেই গানকেই হৃদয়ের মনিকোঠায় রেখে জীবনটাই কাটিয়ে দিচ্ছেন উত্তরপ্রদেশের এক ব্যক্তি। আসলে লতাই তাঁর ধ্যান-জ্ঞান-স্বপ্ন। লতা ছাড়া তাঁর জীবনে আর কিছুই নেই।

যে জিনিসের ওপর লতা মঙ্গেশকরের নাম লেখা আছে, সেটাই রয়েছে তাঁর ঘরে। তালিকায় কী নেই!‌ লতার আদ্যিকালের পুরনো সব গানের ক্যাসেট, সিডি থেকে শুরু করে শিল্পীকে নিয়ে লেখা দেশি-বিদেশি বই, সংবাদপত্রে ছাপা খবর, সবই রয়েছে।

কার্যত নিজের ঘরকে আস্ত একটি লাইব্রেরি বানিয়ে ফেলেছেন বছর 36-এর গৌরব শর্মা। তাঁর ঘর জুড়ে রয়েছেন শুধুই লতা। এখানেই শেষ নয়, লতা মঙ্গেশকর যেদিন থেকে টুইটারে যোগ দিয়েছেন, সেইদিন থেকে তাঁর সমস্ত পোস্টই সংরক্ষণ করে রেখেছেন মিরাটবাসী গৌরব।

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে লতা মঙ্গেশকরের প্রতি নিঃশর্ত ভালবাসা এমন জায়গায় গিয়েছে যে তিনি ঠিক করেছেন, কোনওদিন অন্য মহিলার সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্ক গড়বেন না। শিল্পীর সুরেলা কণ্ঠ, গান তো গোটা বিশ্বের মানুষ ভালবাসেন। তিনি ভালবেসে ফেলেছেন লতার জীবন সংগ্রামকে।

সঙ্গীত জীবনের শুরুটা খুব একটা মসৃন ছিল না লতার। এক রকম যুদ্ধ করেই আজ তিনি কিংবদন্তি। গৌরব শর্মা জানাচ্ছেন, ‘‌ছোটবেলায় আমার ঠাকুমা লতাজির একটি ছবি আমার হাতে দিয়ে বলেছিলেন, খুঁজতে হলে লতাজিকে খোঁজ। তখন বুঝিনি ঠাকুমা ঠিক কী বলতে চেয়েছিলেন। আজ বুঝি। আমি আসলে এতদিন ঈশ্বরকেই খুঁজে চলেছি। আমার সঙ্গে লতাজীর সম্পর্ক একেবারেই গুরু-শিক্ষকের।’‌‌‌

আরও পড়ুন-ঝাড়খন্ড পুলিশের পরোয়ানা, আইনি তৎপরতার গেরোয় অনিশ্চিত ছত্রধরের মুক্তি