রাজীব মামলায় আদালতে তুমুল বিতণ্ডা, রায়দান পরে

আদালত চত্বরে টানটান উত্তেজনার মধ্যেই আলিপুর এসিজেএম-এ আদালতে শুরু হয়েছে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদনের শুনানি। বৃহস্পতিবার, বেলা পৌনে তিনটে নাগাদ শুনানি শুরু হয়। প্রথম থেকেই সুর চড়ান রাজীব কুমার ও সিবিআই-এর আইনজীবী গোপাল হালদার ও কে সি মিশ্র। প্রথমে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের গ্রেফতারির আর্জি জানায় তদন্তকারী সংস্থা। জবাবে বিচারক বলেন, সব ক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও কেন রাজীব কুমারকে ধরতে পারছে না সিবিআই। সিবিআইয়ের আইনজীবী অভিযোগ করেন, তথ্য নষ্ট করেছেন রাজীব। এরফলে তাঁকে বাইরে রেখে তদন্ত চালানো সম্ভব নয়। এর আগে, রাজীব কুমার জিজ্ঞাসাবাদে জানান, তিনি নন, অর্ণব ঘোষই সারদা মামলার তদন্ত করেন। এদিনের শুনানিতে, সিবিআইয়ের আইনজীবী জানান, রাজীবের কথাতেই তদন্ত প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন অর্ণব। সিবিআইয়ের কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশ মতো আমরা তদন্ত করছি। রাজীব কিন্তু সাহায্য করছেন না। তিনি জানান, আইন মেনেই রাজ্য প্রশাসনকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। এই প্রসঙ্গে কে সি মিশ্র দাউদ ইব্রাহিমের প্রসঙ্গও টেনে আনেন। রাজীব কুমারের পক্ষে সওয়াল করতে গিয়ে তাঁর আইনজীবী গোপাল হালদার জানান, সিবিআই-এর সব নোটিশের জবাব দিয়েছেন রাজীব। তাহলে কীভাবে সিবিআই বলছে তদন্তে সহযোগিতা করছেন না রাজীব? দুপক্ষের সওয়াল জবাবের পরে রায়দান আপাতত স্থগিত রাখেন বিচারক।

আরও পড়ুন-এন আর সি নিয়ে হয়রানি বন্ধ হোক, অমিতকে বললেন মমতা