হাতে হাত মিলিয়ে ২৮৩ কিলোমিটার লং মার্চে বাম-কংগ্রেস জোট

আবার লং মার্চে বামেরা। তবে এবার একা নয়, জোটসঙ্গী কংগ্রেস। একদিকে ২৮৩ কিলোমিটারের দীর্ঘ যাত্রাপথ, আর আর একদিকে ১১২ কিলোমিটারের পথ। বাম-কংগ্রেস হাতে হাত মিলিয়ে এই লং-মার্চে অংশ নিচ্ছে নভেম্বরের শেষ সপ্তাহে। ইস্যু, রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা বাঁচানোর দাবি এবং কেন্দ্র রাজ্য সরকারের জনবিরোধী নীতি।

দক্ষিণবঙ্গে লং মার্চ শুরু হবে চিত্তরঞ্জন লোকোমোটিভ গেট থেকে। ৩০ নভেম্বর শুরু হয়ে মিছিল কলকাতায় পৌঁছাবে ১১ ডিসেম্বর। অর্থাৎ টানা ১২দিনে ২৮৩ কিলোমিটার পথ পরিক্রমা। ৩০ নভেম্বর উত্তরবঙ্গের কোচবিহার থেকে মিছিল শুরু হয়ে ১০ তারিখে মিছিল শেষ হবে শিলিগুড়িতে। শিলিগুড়িতে হবে সভা আর কলকাতায় হবে রাজভবন অভিযান।

এই লং মার্চে বামফ্রন্টের সব শরিক দল তো থাকবেই, থাকবে শ্রমিক সংগঠনগুলিও। থাকছে কংগ্রেস, কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠন এবং শাখা সংগঠনগুলিও। মানুষকে বার্তা দিতে মিছিলে থাকবেন দুদলের নেতারা। পুরভোট এবং বিধানসভা ভোটকে পাখির চোখ করে বাম কংগ্রেসের জোট একদিকে যেমন জ্বলন্ত ইস্যুগুলিকে মানুষের সামনে নিয়ে আসতে চাইছে, ঠিক তেমনি এবারের এই জোট যে পরিকল্পিত এবং লম্বা রেসের তার বার্তাও দেওয়া হবে। কর্মসূচি নিয়ে বামফ্রন্ট এবং কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব বৈঠক সেরে ফেলেছেন। মহারাষ্ট্রের কৃষকদের লং মার্চের আদলে এবার বাংলার বুকে লং মার্চ। দেখার বিষয় কতখানি জনসমর্থন আদায় করতে পারে এই জোট।