প্রেসিডেন্সির সেই ওটেন-সিঁড়িতে এখন ‘আজাদি’র হাত

জাতি-বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য করার জন্য অধ্যাপক ওটেনকে যে সিঁড়ির গোড়ায় ধাক্কা মেরেছিলেন সুভাষচন্দ্র বসু, সেই সিঁড়িজুড়ে বড় করে আঁকা একটি মুষ্ঠিবদ্ধ হাত৷ তলায় ইংরেজিতে লেখা ‘আজাদি’।

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ভবনের সিঁড়িতে আঁকা ওই বিশাল হাতই নাকি আজ প্রতিবাদী পড়ুয়াদের ঐক্যের প্রতীক৷ ছাত্রছাত্রীদের ক্ষোভ, “বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাদের আন্দোলন ভাঙতে চাইছেন। তাই যুক্তিসঙ্গত আন্দোলনের ঐক্যের প্রতীক হিসেবে মুষ্ঠিবদ্ধ হাত এঁকেছি আমরা”৷

এই মুষ্ঠিবদ্ধ হাত এঁকেছে প্রেসিডেন্সির বর্তমান পড়ুয়া ও প্রাক্তনীরা। এছাড়াও গোটা চত্বর জুড়ে আঁকা ও লেখা হয়েছে NRC – CAA বিরোধী ছবি ও স্লোগান৷ প্রেসিডেন্সির SFI নেত্রী দেবনীলের কথা, “আমরা সবাই যে একসঙ্গে আছি, এটা তারই প্রতীক। আমাদের আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না। আমরা ঐক্যবদ্ধ, তা বোঝাতেই এই ঐক্যের ছবি তুলে ধরেছি”৷

আরও পড়ুন-ফের আর্জি খারিজ, তারপরও নির্ভয়া-দোষীদের ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি নিয়ে সংশয়